চবিতে আন্তর্জাতিক বায়োটেকনোলজি সম্মেলন ২৭ জানুয়ারি

চবি
  © সংগৃহীত

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি বিভাগ এবং ন্যাশনাল ইনষ্টিটিউট অফ বায়োটেকনোলজির (এনআইবি) যৌথ উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে 'আন্তর্জাতিক বায়োটেকনোলজি কনফারেন্স-২০২৪'। "আগামী প্রজন্মের জৈবপ্রযুক্তি: অসাধারণত্বের পথে"- প্রতিপাদ্যে আগামী ২৭ জানুয়ারি (শনিবার) চবির জীববিজ্ঞান অনুষদ অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে এ সম্মেলন। 

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) দুপুর দেড়টায় জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের কনফারেন্স রুমে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বিষয়টি নিশ্চিত করেন 'আন্তর্জাতিক বায়োটেকনোলজি সম্মেলনের' সদস্য সচিব অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আল-ফোরকান।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, জিন প্রকৌশল ও জীবপ্রযুক্তি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. নাজনীন নাহার ইসলাম, অধ্যাপক ড. লুলু ওয়াল মরজান, অধ্যাপক ড. এসএম রফিকুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. আদনান মান্নান এবং সহকারী অধ্যাপক ড. মো. মাহবুব হাসান।

অধ্যাপক ড.মোহাম্মদ আল-ফোরকান বলেন, জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ বায়োটেকনোলজি (এনআইবি), বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে "আন্তর্জাতিক বায়োটেকনোলজি কনফারেন্স ২০২৪ (IBC 2024)" -"আগামী-প্রজন্মের জৈবপ্রযুক্তি" অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এতে বাংলাদেশসহ বিশ্বের খ্যাতনামা বিজ্ঞানীরা অংশগ্রহণ করবেন। সেখানে আমাদের বিভাগের চলমান গবেষণা প্রকল্পসমূহ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। এর ফলে আমাদের গবেষণা প্রকল্পগুলো নতুন মাত্রা পাবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

এছাড়া আন্তর্জাতিক এ সম্মেলনে বিশ্বের ৫৭টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিত্বকারী ৫২০ জন অংশগ্রহণ করবেন। অষ্ট্রেলিয়া, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি ও ভারতসহ পৃথিবীর ৮টি দেশের গবেষক এবং শিল্প উদ্যোক্তারা তাদের জীবপ্রযুক্তির দক্ষতা এক টেবিলে নিয়ে আসবেন। এতে শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং শিল্প প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ব্যবধান পূরণ করবে বলে প্রত্যাশা করেন বিভাগের শিক্ষকরা।

এতে মূল বক্তা হিসাবে থাকবেন ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির গবেষক অধ্যাপক ড. উৎপল বোরা, আইসিডিডিআর,বি'র সিনিয়র সাইন্টিস্ট ড. মোস্তাফিজুর রহমান, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ বায়োটেকনোলজির মহাপরিচালক ড. মো. সলিমুল্লাহ, আইসিডিডিআর,বি'র সিনিয়র সাইন্টিস্ট (ইমিরেটাস) ড. রুবহানা রাকিবসহ পৃথিবী খ্যাত শতাধিক গবেষক এতে অংশ নেবেন। 

আয়োজক কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. নাজনীন নাহার ইসলাম বলেন, আইবিসি ২০২৪ হলো বিশ্বব্যাপী সহযোগিতা, বৈজ্ঞানিক অগ্রগতি এবং পরবর্তী প্রজন্মের বায়োটেকনোলজি গবেষণায় সামনের সারিতে বাংলাদেশ এর অবস্থান নিশ্চিত করার জন্য একটি অনুঘটক। আমরা গবেষক এবং শিল্প নেতাদের আমন্ত্রণ জানিয়েছি যাতে নীতিনির্ধারক এবং সমস্ত বয়সের উচ্চাকাক্ষী বিজ্ঞানীরা জৈবপ্রযুক্তির এই গুরুত্বপূর্ণ যাত্রায় আমাদের সঙ্গে যোগ দেবেন।

তিনি আরও বলেন, পাঁচটি বিষয়বস্তুকে সামনে রেখে গবেষকগণ আলোচনা করবেন। সেগুলো হলো- প্রাণী, মৎস্য ও সামুদ্রিক জৈবপ্রযুক্তি। বায়োইনফরমেটিক্স সিষ্টেম এবং কম্পিউটেশনাল বায়োটেকনোলজি। শিল্প, ফার্মাসিউটিক্যাল এবং খাদ্য জৈবপ্রযুক্তি। চিকিৎসা, স্বাস্থ্য এবং মাইক্রোবিয়াল জৈবপ্রযুক্তি। উদ্ভিদ, কৃষি এবং পরিবেশ জৈবপ্রযুক্তি।

বিভিন্ন আয়োজনের মাঝে থাকছে- উদীয়মান গবেষকদের উপস্থাপনা "ইয়ং ইমার্জিং বায়োটেকনোলজিস্ট", গবেষণা থিসিস নিয়ে "স্পটলাইট টক", নারী গবেষকদের "ওমেন ইন বায়োটেক", "প্লেনারি সেশন, পোস্টার প্রদর্শনী। 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন চবি উপাচার্য অধ্যাপক ড.শিরীণ আখতার ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, সম্মেলন উদ্বোধন করবেন ইমেরিটাস অধ্যাপক ও বাংলাদেশ বিজ্ঞান একাডেমির সভাপতি ড. একে আজাদ চৌধুরী।


মন্তব্য