বেরোবিতে আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণ

বেরোবি
  © সংগৃহীত

রংপুরের বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় (বেরোবি)আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০২৪ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে।     

বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উৎসবমুখর পরিবেশে ছাত্র ও ছাত্রীদের অংশগ্রহণে দুটি ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীনতা স্মারক মাঠে শারীরিক শিক্ষা বিভাগের আয়োজনে ছাত্রীদের মাঝে অনুষ্ঠিত ফাইনাল ম্যাচে একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগকে হারিয়ে জেন্ডার এন্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ বিভাগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে। অপর ফাইনাল ম্যাচে ছাত্রদের মাঝে অনুষ্ঠিত খেলায় গণিত বিভাগকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয় মার্কেটিং বিভাগ।

পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ হাসিবুর রশীদ এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সরিফা সালোয়া ডিনা। খেলা শেষে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথি বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য বলেন, সকলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় ক্রীড়া প্রতিযোগিতাটি খুবই চমৎকারভাবে সম্পন্ন হয়েছে। তিনি বলেন, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি চর্চা ছাত্রছাত্রীদেরকে নেতিবাচক কর্মকান্ড থেকে বিরত রাখে এবং নেতৃত্ব বিকাশে সহায়ক হিসেবে কাজ করে। তিনি শিক্ষার্থীদের মানবিক বিকাশে পড়ালেখার পাশাপাশি এ ধরনের ক্রীড়া চর্চা অব্যাহত রাখার আহবান জানান।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য বলেন, শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের মাধ্যমে পড়ালেখার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রমে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, পড়ালেখা ও সাংস্কৃতিক চর্চার মাধ্যমে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে। 

বেরোবি শারীরিক শিক্ষা বিভাগের পরিচালক ড. মোঃ আল হেলালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রক্টর মোঃ শরিফুল ইসলাম, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হলের প্রভোস্ট মীর তামান্না ছিদ্দিকা, শহীদ মুখতার ইলাহী হলের প্রভোস্ট মোঃ শাহীনুর রহমান, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান মন্ডল আসাদ, বহিরাঙ্গন কার্যক্রম দপ্তরের পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সাব্বীর আহমেদ চৌধুরী, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা দপ্তরের পরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সৈয়দ আনোয়ারুল আজিম, বেরোবি ছাত্রলীগের সভাপতি পোমেল বড়ুয়াসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য