জবির ইতিহাস বিভাগে 'মুনতাসীর মামুন' স্বর্ণপদক চালু 

জবি
  © টিবিএম ফটো

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ইতিহাস বিভাগে মুনতাসীর মামুন স্বর্ণপদক চালু করা হয়েছে। জবির  ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ও দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র গণহত্যা জাদুঘরের ট্রাস্টি সম্পাদক ড. শহীদ কাদের চৌধুরী এই ট্রাস্ট ফান্ডের উদ্যোক্তা।

অধ্যাপক মামুনের ৭৩তম জন্মদিন শুক্রবার। এই শিক্ষকের কমর্ময় জীবনের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে জবির ইতিহাস বিভাগ বৃহস্পতিবার (২৩মে) প্রশাসনিক ভবনে উপাচার্যের সভাকক্ষে স্বর্ণপদকের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠান আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে জবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম এবং সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক ড. মুনতাসীর মামুন। 

প্রতিবছর ইতিহাস বিভাগে স্নাতক চতুর্থ বষের্র চূড়ান্ত সেমিস্টার পরীক্ষা শেষে ফলাফলের ভিত্তিতে সর্বোচ্চ সিজিপিএধারী শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তনে স্বর্ণপদক প্রদান করা হবে।

এই ট্রাস্ট ফান্ডের উদ্যোক্তা অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনের প্রাক্তন ছাত্র। তার এই  উদ্যোগের পাশে দাঁড়িয়েছেন অধ্যাপক মুনতাসীর মামুনের পরিবারের সদস্যরা। প্রাথমিকভাবে দাতারা দশ লক্ষ টাকা প্রদান করে ফান্ড গঠন করেন।

এনিয়ে ট্রাস্ট ফান্ডের উদ্যোক্তা জবি ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ও দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র গণহত্যা জাদুঘরের ট্রাস্টি সম্পাদক ড. শহীদ কাদের চৌধুরী বলেন, 'আমার শিক্ষকের জন্মদিনে এটা করতে পেরে আমি আনন্দিত। আশা করি মুনতাসীর মামুনকে এটা আগামী প্রজন্মের মধ্যে বাঁচিয়ে রাখবে।'

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন প্রায় পাঁচ দশক ধরে শিক্ষকতা, ইতিহাসচর্চা ও  রাজনৈতিক-সাংস্কৃতিক আন্দোলনের সাথে সম্পৃক্ত। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের প্রাক্তণ ও বর্তমানে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যায়ের বঙ্গবন্ধু অধ্যাপক। খুলনার গণহত্যা জাদুঘর ও বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনীর প্রতিষ্ঠাতা। 

এ বিষয়ে জবির ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুর্শিদা বিনতে রহমান বলেন, আজ ফান্ডের চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। আরও কিছু বিষয়ে পরবর্তী সভায় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। সর্বোচ্চ ফলাফলের ভিত্তিতেই একজন শিক্ষার্থীকে স্বর্ণপদক প্রদান করা হবে।

উপাচার্য অধ্যাপক সাদেকা হালিম এই ধরণের একটি উদ্যোগ নিয়ে ইতিহাস বিভাগের পাশে এসে দাঁড়ানোর জন্য দাতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।  

অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন ইতিহাস বিভাগে কর্মরত তার প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জানান এই ট্রাস্ট ফান্ড চালু করতে সহায়তা করার জন্য।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. হুমায়ুন কবির চৌধুরী এবং রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. মো. আইনুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মুর্শিদা বিনতে রহমান, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সেলিম, অধ্যাপক খোদেজা খাতুন ও দাতাদের পক্ষে ফাতেমা মামুনসহ  প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ