সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে বুটেক্স কর্মকর্তাদের মানবন্ধন  

বুটেক্স
মানববন্ধনে বুটেক্স কর্মকর্তাবৃন্দ  © টিবিএম

সর্বজনীন পেনশন স্কিম বিধিমালার প্রজ্ঞাপন হতে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্ভুক্তি প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুটেক্স) কর্মকর্তাবৃন্দ। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) সকাল ১০:৩০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে মানববন্ধনটি আয়োজন করে বুটেক্স কর্মকর্তা সমিতি।

মানববন্ধনে বুটেক্স কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি মুহাম্মদ শরীফুর রহমান বলেন, আমাদের বাংলাদেশ দুর্বার গতিতে সামনের দিকে এগিয়ে চলছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে যে স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে তাকে বাধাগ্রস্ত করার জন্য কোনো এক কুচক্রী মহল সরকারকে ভুল বুঝিয়ে এ বৈষম্যমূলক প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

এতে মানবসম্পদ তৈরি করার সূতিকাগার পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়কে অন্তর্ভুক্ত করেছে। যদি এ পেনশন নীতিমালায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়-গুলো বহাল থাকে তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়-গুলোতে মেধাবী শিক্ষক, কর্মকর্তা ও অন্যান্য প্রতিনিধিরা যোগদান করবেন না। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়-গুলো মেধাশূন্য হবে। পক্ষান্তের জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তাই আমি কর্মকর্তা সমিতির পক্ষ হতে জোর দাবি জানাই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যেন বিষয়টা অনুধাবন করেন এবং পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এই বৈষম্যমূলক প্রজ্ঞাপন থেকে অন্তর্ভুক্তি প্রত্যাহার করেন।

বুটেক্স কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: বিল্লাল হোসেন বলেন, এই বৈষম্যমূলক পেনশন ব্যবস্থা চালু হলে অচিরেই আমাদের এ প্রতিষ্ঠান পঙ্গুত্ব বরণ করবে। ফলে  আমরাও পঙ্গুত্বের শিকার হব। তাই আমরা শপথ নিচ্ছি যতদিন না আমাদের দাবি বাস্তবায়ন হবে ততদিন আমরা রাজপথে আন্দোলন চালিয়ে যাব।


মন্তব্য