বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম ধাপেই ভর্তি সম্পন্ন ৯৪ শতাংশ

ববি
  © ফাইল ছবি

গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্মাতক (সম্মান) প্রথম ধাপের ভর্তির কার্যক্রম হয় ৫ জুন থেকে ৮ জুন পর্যন্ত।বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম দফায় ভর্তি হয়েছেন ১ হাজার ৪৮১ জন শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আসন সংখ্যা রয়েছে মোট ১ হাজার ৫৭০ টি।এতে প্রথম ধাপেই ভর্তির হার ৯৪ শতাংশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তির টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক সহযোগী অধ্যাপক রাহাত হোসাইন ফয়সাল।

ভর্তির টেকনিক্যাল কমিটির আহ্বায়ক রাহাত হোসাইন ফয়সাল জানান, আমরা সফলতার সাথে প্রথম ধাপের ভর্তির কার্যক্রম সম্পন্ন করতে পেরেছি।আমাদের এখানে ভর্তির হারটাও অনেক বেশি। শতাংশের কাছাকাছি। গুচ্ছে মোট পাঁচটি ধাপে প্রাথমিক ভর্তি সম্পন্ন হয়, তাতে প্রথম ধাপেই ৯৪ শতাংশ ভর্তি সম্পন্ন করেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়। আশা করছি দ্বিতীয় বা তৃতীয় ধাপের মধ্যেই শতভাগ ভর্তি সম্পন্ন হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মহোদয়ের আন্তরিকতা ও সার্বিক নির্দেশনায় আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।

এর আগে গুচ্ছভুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীদের মাঝ থেকে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৬ হাজার ৪০৯ জন আবেদন করেছিল। এছাড়া গুচ্ছভুক্ত শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করেছে ২০ হাজার ৮৪২, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে আবেদন করেছে ২৯ হাজার ৬০৩ জন। ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ২২ হাজার ৪৬১ জন, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৭ হাজার ৬৬৪, হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৬ হাজার ৩৩৯, মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৭ হাজার ৯৮৭, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮ হাজার ৮২৫, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৮ হাজার ৯৮০, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ হাজার ৪১৮, যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২ হাজার ৬৭৩ জন।

এছাড়া বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৫ হাজার ৯৭৩, পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৪ হাজার ২৬৪, গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ১৭ হাজার ৩৮৪, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ হাজার ৯০৮, রাঙামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪ হাজার ৪৬, রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ হাজার ৯০৮, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ হাজার ২১৮, শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪ হাজার ১৭৮, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ হাজার ৫৭৮, পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫ হাজার ৫৮৫, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক হাজার ৩৭৬, চাঁদপুর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক হাজার ৮৪১, সুনামগঞ্জ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক হাজার ২৯৭ এবং পিরোজপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই হাজার ৫৩ জন ভর্তির জন্য আবেদন করেছেন।


মন্তব্য