ঢাবিতে ‘কিক্স বাংলাদেশ ন্যাশনাল আপটেক ফোরাম’ সম্মেলন শুরু

ঢাবি
  © টিবিএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট এবং আন্তর্জাতিক সংস্থা 'নলেজ অ্যান্ড ইনোভেশন এক্সচেঞ্জ (কিক্স)'- এর যৌথ উদ্যোগে দুই দিনব্যাপী 'কিক্স বাংলাদেশ ন্যাশনাল আপটেক ফোরাম-২০২৪' শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন সোমবার (১০ জুন) বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবন মিলনায়তনে শুরু হয়েছে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের ১০টি দেশের শিক্ষক, গবেষক, বিশেষজ্ঞ ও শিক্ষার্থী সম্মেলনে অংশগ্রহণ করছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামালের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কিক্স ইম্যাপ হাব-এর পরিচালক যোশে লুইস ক্যানেলহ্যাস, কানাডার আইডিআরসি-এর সিনিয়র প্রোগ্রাম স্পেশালিস্ট মারগারিটা লোপেজ, গ্লোবাল পার্টনারশীপ এক্সচেঞ্জ-এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তা কফি সেগনিয়াগবেতো এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আবদুল হালিম ও অধ্যাপক ড. এম অহিদুজ্জামান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পরে 'আপটেক অব রিসার্চ ইন পলিসি এন্ড প্র্যাকটিস: চ্যালেঞ্জেস এন্ড এক্সপেরিয়েন্সেস' শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন যথাক্রমে ঢাবি ইংরেজি বিভাগের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. সৈয়দ মনজুরুল ইসলাম, সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে. চৌধুরী এবং কিক্স ইম্যাপ-এর প্রধান গবেষক অধ্যাপক গীতা স্টেইনার খামসি।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী দেশ-বিদেশের শিক্ষাবিদ ও গবেষকদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্বাগত জানিয়ে বলেন, শিক্ষা ও গবেষণার উন্নয়নে এই আন্তর্জাতিক সম্মেলন খুবই তাৎপর্যপূর্ণ ও সময়োপযোগী ভূমিকা রাখবে। শিক্ষার্থীদের মানবিক গুণাবলী অর্জন ও বিকাশে নতুন নতুন জ্ঞান ও উদ্ভাবন অপরিহার্য। দুই- দিনব্যাপী এই সম্মেলনে অংশগ্রহণের ফলে শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীরা পারস্পরিক জ্ঞান বিনিময়ের মাধ্যমে নিজেদেরকে আরও সমৃদ্ধ করতে পারবেন। এছাড়া, সম্মেলন থেকে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় নতুন কারিকুলাম সংযোজন ও নীতিনির্ধারণে যথাযথ সুপারিশ এবং দিক নিদের্শনা পাওয়া যাবে বলে উপাচার্য আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শিক্ষামন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেন, শিক্ষা ক্ষেত্রে যেকোন পলিসি বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট দেশের সংস্কৃতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। যদি পলিসি গ্রহণের ক্ষেত্রে সংস্কৃতিকে সঠিকভাবে গুরুত্ব দেয়া না হয় তাহলে অনেক ক্ষেত্রে তার বাস্তবায়ন সম্পূর্ন সম্ভব হয় না। এসব বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে কিক্স তাদের যাবতীয় গবেষণা কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এসময় তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার গবেষণা ভিত্তিক শিক্ষা ব্যবস্থার উপর
গুরুত্ব দিয়েছে। এক্ষেত্রে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউট জোড়ালো ভূমিকা পালন করে আসছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।


মন্তব্য