ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে ফুটবল খেলল রবি শিক্ষার্থীরা 

রবি
মহাসড়কে ফুটবল খেলছে (রবি) শিক্ষার্থীরা  © টিবিএম

বৈষম্যমূলক কোটাপ্রথা পূণর্বহালের রায় বাতিল এবং কোটার যৌক্তিক সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে ফুটবল খেলেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। শনিবার (৭ জুলাই) দুপুর ৩.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-৩ এর মূল ফটকের সামনের ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে ফুটবল খেলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এতে কয়েক কিলোমিটার তীব্র যানজট তৈরি হয়। দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। তবে অ্যাম্বুলেন্স এবং অসুস্থ রোগীদের গাড়িগুলো পারপারের সুযোগ দেন আন্দোলনকারীরা। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-৩ এ শিক্ষার্থীরা জড়ো হতে থাকেন। 

আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা এক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান বলেন, ‘আমাদের আন্দোলন যৌক্তিক আন্দোলন। আমার বাবা-দাদা মুক্তিযুদ্ধ করেছিলেন বৈষম্যকে কবর দিতে, সেখানে মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে বৈষম্য আমরা মানতে চাইনা। কোটা সংস্কার না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে।’

আরেক আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে বলেন, আমরা কোটা পদ্ধতির দ্রুত সুরাহা চাই। দিন যত যাবে আন্দোলন ততো তীব্র হবে বলে হুশিয়ারি দেন। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী আরো বলেন, আমরা দ্রুত এ আন্দোলন থেকে টেবিলে ফিরতে চাই। আশা করি প্রধানমন্ত্রী সে সুযোগ করে দিবেন।

এসময় শিক্ষার্থীরা ‘কোটা না মেধা? মেধা মেধা’, আপোষ না সংগ্রাম-সংগ্রাম সংগ্রাম’, ‘আঠারোর পরিপত্র-পুনর্বহাল করতে হবে’, ‘কোটাপ্রথা নিপাত যাক-মেধাবীরা মুক্তি পাক’, ‘সারা বাংলায় খবর দে-কোটাপ্রথার কবর দে’, ‘আমার সোনার বাংলায়-বৈষম্যের ঠাই নাই’, ‘জেগেছে রে জেগেছে-ছাত্র সমাজ জেগেছে’, ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।


মন্তব্য