ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে বই পড়লেন রবি শিক্ষার্থীরা

রবি
ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক  © টিবিএম

বৈষম্যমূলক কোটাপ্রথা পূণর্বহালের রায় বাতিল এবং কোটার যৌক্তিক সংস্কারের দাবিতে টানা ৪র্থ দিনের মতো ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে বই পড়লেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সোমবার (৮ জুলাই) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-৩ এর মূল ফটকের সামনের ঢাকা-পাবনা মহাসড়ক অবরোধ করে বই পড়েন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। এতে কয়েক কিলোমিটার তীব্র যানজট তৈরি হয়। দুর্ভোগে পড়েন যাত্রীরা। তবে অ্যাম্বুলেন্স এবং অসুস্থ রোগীদের গাড়িগুলো পারপারের সুযোগ দেন আন্দোলনকারীরা। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ভবন-৩ এ শিক্ষার্থীরা জড়ো হতে থাকেন। 

এসময় আন্দোলনকারী এক শিক্ষার্থী বলেন, কোটা প্রথার কারণে দেশের মেধাবী শিক্ষার্থীরা মূল্যায়িত হচ্ছে না। দেশের প্রশাসনে মেধাবী শিক্ষার্থীরা সুযোগ না পাওয়াই দুর্নীতিতে ভরপুর সকল সেক্টর। যেখানে মুক্তিযুদ্ধ আমাদের জন্য গর্বের সেটাতে আমরা কোটা প্রয়োগ করে করুনা জায়গা বানিয়ে ফেলছি। এই কোটা প্রথা অযৌক্তিক। অবিলম্বে কোটা প্রথা বাতিল করা হোক।

এসময় কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা 'জ্বালরে জালো, আগুন জ্বালো' 'কোটাবৈষম্য নিপাত যাক, মেধাবীরা মুক্তি পাক', 'মেধাবীদের যাচাই করো, কোটাপদ্ধতি বাতিল করো', 'আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠো আরেকবার', 'জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে', ' বাতিল চাই বাতিল চাই, কোটা প্রথা বাতিল চাই' ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন।


মন্তব্য