কোটা সংস্কারের এক দফা দাবিতে হাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

হাবিপ্রবি
  © টিবিএম

সরকারি চাকরিতে কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ সমাবেশ পালন করেছেন দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (হাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১০ জুলাই) বেলা ১১:৩০ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

এর আগে সকাল ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে জড়ো হতে থাকেন শিক্ষার্থীরা। পরে এক বিশাল মিছিল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেট থেকে তৃতীয় গেট (ডিভিএম গেট) হয়ে ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করেন তারা। এসময় বন্ধ হয়ে যায়  ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়কের  সকল যান চলাচল।

‘সারা বাংলায় খবর দে, কোটা প্রথার কবর দে’, ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে উঠুক আরেকবার’, ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্রসমাজ জেগেছে’, ‘কোটা না মেধা, মেধা মেধা’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাই নাই’, 'মেধা যার মেধা যার, চাকরি তার চাকরি তার' এসব স্লোগানে উত্তপ্ত হয়ে উঠে পুরো ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়ক। 

কোটা সংস্কার আন্দোলন বিষয়ে সুজন রানা বলেন, 'বাংলা ব্লকেড' কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ আমরা ঢাকা-দিনাজপুর মহাসড়ক অবরোধ করেছি। আমরা দিনব্যাপী আন্দোলন চলমান রাখবো। আমাদের দেশে যোগ্যতাসম্পন্ন শিক্ষিত বেকার যুবকেরা কোটার শিকার হয়ে অযোগ্য মেধাহীন যুবকদের চাকরি দিয়ে শিক্ষিত বেকার সংখ্যা বৃদ্ধি করা হচ্ছে। এর দায় কার? কোটা পদ্ধতির সংস্কার না হওয়া পর্যন্ত এ আন্দোলন চালিয়ে যাবো। আমাদের ১ দফা দাবি ৫৬% কোটাকে ৫% নামিয়ে আনতে হবে।'

এসময় শত শত শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে উপস্থিত হন।


মন্তব্য