শিবচরে ডাকাতি করে পালানোর সময় গণপিটুনিতে ১ জন নিহত, আহত ৩

মাদারীপুরে
  © টিবিএম ফটো

মাদারীপুরের শিবচরে ডাকাতি শেষে পালানোর সময় গণপিটুনিতে এক জন নিহত হয়েছে। এসময় গণপিটুনিতে ১ জন আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতকে উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে। সকালে স্থানীয়রা আরো ২ ডাকাতকে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। ডাকাতের হামলায় একজন আহত হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার ভোররাতে(সাড়ে ৩ টা) উপজেলার বাঁশকান্দি ইউনিয়নের বাজিতপুর এলাকায় সাবেক সচিব আ: হাকিমের ভাই আ: হালিমের বাড়িতে ৫ জনের একটি ডাকাত দল প্রথমে হানা দেয়। এসময় বাড়ির লোকজন চিৎকার শুরু করলে ডাকাত দলটি পালিয়ে গিয়ে পার্শবর্তী এলাকার ভ্যান চালক দেলোয়ার হাওলাদারের বাড়িতে হানা দিয়ে তুষার মিয়াকে জিম্মি করে ঘরে প্রবেশ করে। ডাকাতরা দেলোয়ার হাওলাদারকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে লাখ টাকার মালামাল লুট করে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয়রা ধাওয়া দিয়ে ডাকাত দলের সদস্য মির্জন খালাসী (৪২) ও হাসমত বেপারীকে (৪৩) আটক করে গলধোলাই দেয়। খবর পেয়ে শিবচর থানা পুলিশের এসআই গোলজার হোসেনসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গুরুতর আহতাবস্থায় ২ জনকে উদ্ধার করে শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মির্জন খালাসীকে মৃত ঘোষনা করেন।

 নিহত মির্জন খালাসী শিবচর উপজেলার সম্ভুক এলাকার মৃত আবু আলী খালাসীর ছেলে। এদিকে সকালে সন্দেহজনক চলাফেরা করায় সাগর হাওলাদার (২৮) ও মোস্তফা কামালকে (৬৫) আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

শিবচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা: মাইনুল ইসলাম বলেন, ভোররাতে দুইজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এর মধ্যে হাসপাতালে আনার আগেই একজনের মৃত্যু হয়েছে।

শিবচর থানার এসআই গুলজার হোসেন বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দুই জনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে আনি। এর মধ্যে একজনের মৃত্যু হয়েছে। অপরজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। সকালে স্থানীয়দের সহায়তায় আরো দুই জনকে আটক করা হয়েছে।


মন্তব্য