প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে জমি দখলের চেষ্টা, নিরাপত্তা চেয়ে বিচার দাবী ভুক্তভোগীর

ঈশ্বরদী
  © ফাইল ছবি

পাবনার ঈশ্বরদীতে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা ও প্রাননাশের হুমকির অভিযোগ উঠেছে লুৎফর রহমান নামে এক ব্যাক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে ঈশ্বরদী উপজেলা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী মোঃ বেলাল হোসেন। তিনি পৌর শহরের পিয়ারাখালী এলাকার মৃত মসলেম হোসেন ট্রেইনের ছেলে। অভিযুক্ত লুৎফর রহমান সম্পর্কে বেলাল হোসেনের আপন ছোট চাচা হন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার বাবা মসলেম হোসেন জীবিত থাকাকালীন সময়ে বাড়ি করে বসবাসের জন্য ৫০ শতাংশ জমি ক্রয় করা হয়। সম্মিলিতভাবে ক্রয়কৃত এ জমির ১০ কাঠা আমার বাবা মসলেম হোসেন, ১১ কাঠা আমার মাতা শাহিদা বেগম এবং বাকি ১০ কাঠা আমার ছোট চাচা লুৎফর রহমানের নামে মালিকানা করে দেওয়া হয়। যেখানে আমার ছোট চাচার ক্রয়কৃত রাস্তা থেকে পশ্চিমপাশে ১০ কাঠা জমি এ যাবত পর্যন্ত ফাঁকা পড়ে রয়েছে। আমার বাবা-মার জমির অংশে মেইন সড়কের উত্তর দিকে বাড়ি করে প্রায় ৩৫ বছর যাবত বসবাস করছি এবং দক্ষিনাংশে রাস্তার সীমানা থেকে বাড়ি পর্যন্ত ফলজ ও বনজ বৃক্ষ আবাদ করে আসছি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে আমার ছোট চাচা লুৎফর রহমান, তার শ্যালক রঞ্জু ও আমার চাচাতো ভাই মনিরুজ্জামান আমাকে ও আমার মাকে নানারকম হুমকি-ধামকি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে অবৈধভাবে প্রভাব খাটিয়ে ফলজ ও বনজ বৃক্ষের বাগানসহ রাস্তার সীমানা থেকে ১০ কাঠা জমি দখলের চেষ্টা করছে। এতে আমরা নিরাপত্তা শঙ্কায় রয়েছি। আমি সুষ্ঠু বিচার দাবীতে প্রশাসনসহ জনপ্রতিনিধিদের সহযোগিতা চাইছি।

এদিকে অভিযুক্ত লুৎফর রহমানের কাছে ঘটনার সত্যতা জানতে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার ছেলে মনিরুজ্জামান ফোন রিসিভ করে বলেন, রাস্তার সীমানা থেকে যে ১০ কাঠা জমি নিয়ে ঝামেলা সেটা আমার বাবার নামে দলিল করা আছে এবং সেখানে একটি সীমানা প্রাচীরও ছিল আমাদের। সেই সীমানা প্রাচীর ভেঙ্গে তারা জোরপূর্বক আমাদের জমির ভিতরে অনুপ্রবেশ করছে। তাদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে আমি ও আমার বাবা ব্যর্থ হয়ে কোর্টের মাধ্যমে ১৪৪ ধারা জারি করে রেখেছি যেন তারা জমির উপর কোন কাজ করতে না পারে


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ