২০ বছরেও পাননি বেতন, শিক্ষিকার লাশ নিয়ে স্কুল মাঠে স্বজনরা 

সারাদেশ
  © সংগৃহীত

চাকরির ২০ বছরেও সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে এক সহকারি শিক্ষিকার হয়নি বেতন। মৃত্যুর পর ঘুষের টাকা ফেরত পেতে তাই  নিহতের লাশ নিয়ে  বিদ্যালয়ে স্বজনরা। সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে উপজেলার গাড়াবেড় চকপাড়া গোদাগাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের ভাই খলিলুর রহমান জানান, ২০০১ সালে নিহত শিক্ষিকা রোকেয়া খাতুন গাড়াবেড়-চকপাড়া -গোদাগাড়ি (জিসিজি) উচ্চ বিদ্যালয়ের মাধ্যমিক শাখায় সহকারি শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। তখন থেকে তিনি এমপিওভূক্তির আশায় বিনা বেতনে  চাকরি করে আসছিলেন। 

তিনি আরও জানান, নিয়োগকালীন সময়ে ওই প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ বিভিন্ন সময়ে এমপিও করে দেয়ার কথা বলে তিনলাখ পঁচানব্বই হাজার টাকা নেন। কিন্তু কাগজপত্র সঠিকভাবে না পাঠানোয় ওই শিক্ষিকার এমপিওভূক্তির আবেদন বাতিল হয়। 

এরপর আবারও আবেদন করার জন্য গত শনিবার ওই শিক্ষিকার নিকট আরও টাকা দাবি করা হয়। সেটি দিতে না পারায় মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন ওই শিক্ষিকা। ওইদিনই রাতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তিনি। পরে তাকে অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসার জন্য ঢাকা নিলে সোমবার ভোরে তিনি মারা যান।

নিহত শিক্ষিকা রোকেয়ার স্বামী আব্দুল করিম জানান, আমার স্ত্রী টাকা দিতে না পারায় মানসিক চাপ থেকে মারা গেছেন। এজন্যে আমরা লাশ নিয়ে স্কুলে এসেছি। এ সময় উত্তেজিত স্থানীয়রা ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও সভাপতির শাস্তির দাবি করে। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষ টাকা ফেরত দেয়ার কথা বলেন। এদিকে খবর পেয়ে কাজিপর থানা পুলিশ ও  উপজেলা প্রশাসন বিদ্যালয়ে আসেন। পরে ঘটনার সঠিক তদন্ত করে বিচারের আশ্বাস দিলে নিহতের লাশ নিয়ে স্বজনেরা বিদ্যালয় মাঠ ত্যাগ করেন।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানান, একটি কাগজ পাঠাতে সমস্যা হওয়ায় এবার ওই শিক্ষিকার এমপিও হয়নি। বিভিন্ন সময়ে অর্থ নেয়ার বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেন।

তথ্য: চ্যানেল২৪

 


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ