চট্টগ্রামে ট্রেনের ইঞ্জিনের সঙ্গে ট্রেনের সংঘর্ষ! আহত ২০!

সংঘর্ষ
  © সংগৃহীত

দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে কর্ণফুলী এক্সপ্রেস। চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ট্রেনের একটি লাইট ইঞ্জিনের সঙ্গে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের সংঘর্ষ লাগে। এতে চট্টগ্রামগামী ট্রেনটির চালক ও সহকারীসহ ২০ জনের অধিক যাত্রী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। 

আহতরা হলেন- কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের চালক মোহাম্মদ আলী (৪২), শান্টিং ইঞ্জিনের চালক নজরুল ইসলাম (৫৪) এবং সহকারী চালক মো. সজিব (৩৫)। বাকিদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, দুর্ঘটনায় আহতদের মধ্যে মধ্যে নজরুল ইসলামের অবস্থা গুরুতর। বাকি আহতদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আজ বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় ফৌজদারহাট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ফৌজদারহাট রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির এসআই ফারুক হোসাইন।  এ ঘটনায় চট্টগ্রামমুখী ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে।

এসআই ফারুক বলেন, কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের ট্রেনের একটি চাকা লাইনচ্যুত হয়ে যায়। সংঘর্ষের ঘটনায় চট্টগ্রামমুখী ট্রেন চলাচল সাময়িক বন্ধ রয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্টগ্রামগামী কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি সন্ধ্যা ৭টায় ফৌজদারহাট অতিক্রম করে ক্যাডেট কলেজ এলাকায় ক্রসিংয়ের সময় সামনে থাকা একটি শান্টিং ইঞ্জিনে ধাক্কা দেয়। এতে কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের বগি লাইনচ্যুত হয়ে যায়।

সীতাকুণ্ড রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার নিজাম উদ্দিন বলেন, আমি নিজেই কর্ণফুলী এক্সপ্রেসের যাত্রী ছিলাম। এ ঘটনায় ট্রেনটির প্রায় ২০ জন যাত্রী আহত হয়েছেন।

রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ বলেন, ক্রসিংয়ের সময় কর্ণফুলী এক্সপ্রেস ট্রেনটি ইঞ্জিনটিকে পিছন থেকে ধাক্কা দিয়েছে। এতে কিছু যাত্রী আহত হয়েছেন। তাদেরকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য