যশোরের ফতেপুরে অর্ধপোড়া মরদেহ উদ্ধার

যশোর
  © টিবিএম ফটো

যশোর সদর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা মান্দিয়া গ্রাম থেকে, নুরপুর গ্রামের মহাসিনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে মহাসিন সুদের ব্যবসার সাথে জড়িত ছিলেন। ব্যবসায়ী দ্বন্দ্বে প্রতিপক্ষরা তাকে হত্যা করে লাশ ফতেপুরে ফেলে রেখে যায়। এরআগে বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই নিখোজ ছিলেন নুরপুর গ্রামের মহাসিন। তিনি তোলা নুরপুর গ্রামের মছি মন্ডলের ছেলে।

যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বেলাল হোসাইন জানান, শুক্রবার সকালে ফতেপুর আদর্শপাড়ার একটি মসজিদের পাশে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির অর্ধপোড়া লাশ দেখতে পায় স্থানীয়রা। মরদেহের মুখসহ শরীরের অর্ধেক অংশ পুড়িয়ে দেয়া হয়েছিলো। পরে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একাধিক টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পরে লাশের ফিঙ্গার প্রিন্ট যাচাই করে পরিচয় শনাক্ত করা হয়। তিনি আরও বলেন, নিহতের স্বজনেরা থানায় রয়েছে। এ বিষয়ে তারা তদন্ত শুরু করেছেন। লাশ যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।এদিকে, পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে নিহতের স্বজনদের কাছে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় মহাসিন সুদের ব্যবসা করতেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে সুদের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে মহাসিনকে প্রতিপক্ষরা হত্যা করে লাশ ফতেপুরে ফেলে গেছে।

এদিকে, লাশের খবর শুনে উৎসুক জনতা ঘটনাস্থলে ভীড় করে। এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।


মন্তব্য