শ্রেণিকক্ষে যৌন হয়রানি, ২ শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে বিদ্যালয়ে তালা

সারাদেশ
দিনাজপুরের বিরামপুরে বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেছে মঙ্গলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকরা  © সংগৃৃহীত

শ্রেণিকক্ষে যৌন হয়রানির অভিযোগে দুই শিক্ষককে বরখাস্তের দাবিতে দিনাজপুরের বিরামপুরে বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে বিক্ষোভ করেছে ওই স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।

রোববার (২৬ মে) বিকেলে বিরামপুর উপজেলার একইর মঙ্গলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।

অভিভাবক ও স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই বিদ্যালয়ের আইসিটির সহকারী শিক্ষক ফরিদ হোসেন ও সহকারী শিক্ষক (ধর্ম) মতিয়ার রহমান শ্রেণিকক্ষে পাঠদানের সময় প্রায়ই ছাত্রীদের সাথে অশোভন আচরণ করেন। তারা বিষয়ভিত্তিক পাঠদান বাদ দিয়ে অশালীন ও আপত্তিকর বিষয়ে কথাবার্তা বলেন এবং কৌশলে ছাত্রীদের স্পর্শকাতর স্থানে হাত দেন। বিষয়টি নিয়ে এক ছাত্রী গত ২৩ মে বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করে।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেন। রোববার তদন্ত কমিটি বিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের বক্তব্য লিপিবদ্ধ করে চলে আসেন। তবে অভিযুক্ত শিক্ষকদের বহিস্কার না করায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বিক্ষোভে করে এবং বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

একইর মঙ্গলপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফারুক-ই-আজম জানান, ঘটনার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশকে সংবাদ দিলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

বিরামপুর উপজেলা নিবার্হী অফিসার নুজহাত তাসনীম আওন বলেন, গত ২৩ মে বিষয়টি নিয়ে এক ছাত্রী লিখিত অভিযোগ দেন। অভিযোগ পাওয়ার পর তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি রোববার ওই বিদ্যালয়ে তদন্ত করতে গেলে শিক্ষার্থী ও অভিভবাকরা আজকেই অভিযুক্ত দুই শিক্ষককে বরখাস্তের দাবি জানান। অভিযুক্ত শিক্ষকদের বহিস্কার না করায় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা বিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে বলেও জানান তিনি।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ