প্রতিপক্ষের হাতে নিহতের ৮ দিন পর জমজ সন্তানের বাবা হলেন সুমন

নরসিংদী
  © টিবিএম ফটো

দীর্ঘ ১৪ বছরের প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে ঘরে এসেছে জমজ কন্যা সন্তান। তবে জন্মের ৮ দিন আগেই তারা বাবাকে হারায়। গত ২২ মে নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার পাড়াতলীতে নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে প্রতিপক্ষের হাতে নিহত হন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়া।

এরপর আজ বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকাল ৯টা ১৫ মিনিটে রাজধানীর বাংলাদেশ স্পেশালাইজড হসপিটালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নিহত সুমনের স্ত্রী সাজিয়া আফরিন লিজা জমজ সন্তান জন্ম দেন।
 
দুই নাতনি ও পুত্রবধূ সুস্থ আছেন জানিয়েছেন নিহত সুমনের বাবা চরসুবুদ্ধি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি হাজি নাসির উদ্দিন। তিনি বলেন, আমার নাতনি দুইটা দেখতে সুন্দর হয়েছে। তাঁরা সুস্থ আছে। তবে দুঃখ হলো, আমার ছেলে নিজ সন্তানের মুখ দেখে যেতে পারল না।

সন্ত্রাসীরা আমার ছেলে সুমনকে হত্যা করেছে। হত্যা মামলায় চারজন আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অন্য আসামিদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি। বাংলাদেশে স্পেশালাইজড হসপিটালের চিকিৎকরা জানান, অস্ত্রোপাচারের মাধ্যমে জমজ সন্তানের জন্ম দেন সাজিয়া আফরিন লিজা। দুই শিশু ও তাদের মা সুস্থ আছেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত ২২ মে উপজেলার চরাঞ্চলে পাড়াতলীতে প্রচারণায় যান তালা প্রতীকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়া। একই দিন ওই ইউনিয়নে যান তার প্রতিপক্ষ চশমা প্রতীকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেল। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে পাড়াতলীর মামদিরকান্দি গ্রামের ছলিমবাড়ির সামনের রাস্তায় দুই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা মুখোমুখি হন। এ সময় উভয় পক্ষে মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হলে এক পর্যায়ে রুবেল সমর্থকদের সরাতে সুমনের গাড়ি থেকে ফাঁকা গুলি ছোড়া হয়।

এতে উত্তেজিত হয়ে রুবেল সমর্থকরা তাঁর গাড়ি ভাঙচুর ও ঘেরাও করেন। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে চলে ধাওয়া পাল্টাধাওয়া। এক পর্যায়ে সুমন গাড়ি থেকে নেমে দৌঁড়ে পালানোর সময় মারধরের শিকার হন। আহত সুমনকে তার কর্মীরা উদ্ধার করে দুপুরের দিকে পাড়াতলী থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে বাঁশগাড়ি পুলিশ ফাঁড়িতে নিয়ে আসেন। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় পুলিশের সহযোগিতায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আনা হয়। সেখানে চিকিৎসক সুমনকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনার তিনদিন পর ২৬ জনকে আসামি করে নিহত সুমনের বাবার দায়ের করা হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত চারজন আসামি গ্রেপ্তার হয়েছে। অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানান রায়পুরা থানার পুলিশ।

এদিকে গত ২৩ মে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন নিহত হওয়ার ঘটনায় রায়পুরা উপজেলা পরিষদের সব পদে নির্বাচন স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন (সিইসি)।


মন্তব্য