ঘূর্ণিঝড় রেমালে উড়ে গেছে  মাদ্রাসার ছাউনি, পাঠদান ব্যাহত

ভোলা
মৌলভীরহাট হোসাইনিয়া ফাজিল ডিগ্রী মডেল মাদ্রাসা (ভোলা)  © টিবিএম

সিডর, আইলার পর দেশের একমাত্র দ্বীপজেলা ভোলাকে ক্ষত-বিক্ষত করে দিয়ে গেলো ঘূর্ণিঝড় রেমাল। ভোলা জেলায় ৬ জনের প্রাণহানি ঘটেছে এ রেমালের তান্ডবে। পানিবন্দী ছিলো লক্ষাধিক মানুষ। রেমালের তান্ডব লিলায় উত্তর ভোলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মৌলভীরহাট হোসাইনিয়া ফাজিল ডিগ্রী মডেল মাদ্রাসার ছাউনি উড়ে গেছে।

ঝড়ে তসনস করে দিয়েছে মাদ্রাসার টিনের ছাউনি। এতে পাঠদানে ব্যাহত হতে দেখা গেছে মাদ্রাসায়। মাদ্রাসায় পাঠদান ব্যাহত হওয়াতে ৫ শতাধিক শিক্ষার্থীর অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে লেখাপড়া।

সরজমিন ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা জংশনস্থ মৌলভীরহাট মাদ্রাসায় গিয়ে দেখা যায় শিক্ষার্থীদের পাশের ছোট একটি রুমে পাঠদান দিচ্ছে শিক্ষকরা। পাঠদানে সমস্যা হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী মাদ্রাসা থেকে ফিরে গেছে। ফিরে যাওয়া এক শিক্ষার্থী বাংলাদেশ মোমেন্টস কে জানান, ক্লাসরুম পাঠদান উপযোগী না তাই তাঁরা বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন।

শিক্ষকরা জানান, মাদ্রাসার ছাউনি ঘূর্ণিঝড় রেমালে উড়ে গেছে এতে ওই রুমে ক্লাস নেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। মেরামতে প্রায় ৪ লক্ষ টাকার মত লাগবে বলেও জানান শিক্ষকরা। মৌলভীরহাট হোসাইনিয়া ফাজিল ডিগ্রী মডেল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তাঁরা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছে কিন্তু কত দিনের মধ্যে সমাধান হবে আর শিক্ষার্থীরাই বা কত দিনের মধ্যে ক্লাসে  ফিরবে তা নির্দিষ্টভাবে বলা যাচ্ছে না।


মন্তব্য