নির্বাচনী কর্মকর্তাদের ওপর মিয়ানমার থেকে শতাধিক গুলি

নাফ
  © বাংলাদেশ মোমেন্টস (ফাইল ছবি)

ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে টেকনাফ উপজেলার সেন্ট মার্টিন দ্বীপের কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিলো। পরে সেন্ট মার্টিনের অসমাপ্ত ভোটগ্রহণ শুরু হয় গতকাল বুধবার। এ ভোটগ্রহণ শেষে নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে ফিরছিলেন কর্মকর্তারা। কিন্তু টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নির্বাচনী কর্মকর্তা ও সরঞ্জাম নিয়ে ফেরা ট্রলার লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে। তবে এতে কেউ হতাহত না হলেও ট্রলারটিতে কয়েকটি গুলি লেগেছে।

বুধবার (৫ জুন) রাত সাড়ে ৮টায় টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ রুটে সাগরের নাইক্ষংদিয়া নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী।

তিনি বলেন, গত ২৯ মে টেকনাফ উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই দিন দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সেন্টমার্টিন দ্বীপের কেন্দ্রের ভোট স্থগিত ছিল। বুধবার এ কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচন শেষে ফেরার পথে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌরুটে নাইক্ষংদিয়া নামক এলাকায় নির্বাচনী কাজে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও ইভিএমের সরঞ্জামভর্তি সার্ভিস ট্রলার লক্ষ্য করে শতাধিক রাউন্ড গুলিবর্ষণ করা হয়েছে। তবে কেউ হতাহত হয়নি। ট্রলারে কয়েকটি গুলি লেগেছ। কারা গুলি ছুড়েছে তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। মিয়ানমার সীমান্তের দিক থেকে গুলিবর্ষণ করা হয়েছে।

নির্বাচনী কর্মকর্তা ও সরঞ্জাম নিয়ে ফেরা এস বি রাফি সার্ভিস ট্রলারের মাঝি মোহাম্মদ বেলাল বলেন, ভোটগ্রহণ শেষে ফেরার পথে নাইক্ষংদিয়া নামক এলাকায় পৌঁছলে মিয়ানমারের উপকূলীয় এলাকা থেকে ট্রলারকে লক্ষ্য করে শতাধিক গুলিবর্ষণ করা হয়। ট্রলারে কয়েকটি গুলি লেগেছে।

এ ব্যাপারে টেকনাফ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-২ এবং টেকনাফ কোস্টগার্ড স্টেশনে যোগাযোগ করা হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।


মন্তব্য