বজ্রপাতে দুই জেলায় শিশুসহ ৬ জনের মৃত্যু

বজ্রপাত
  © ফাইল ছবি

বজ্রপাতে নওগাঁর মান্দা ও পত্নীতলা উপজেলায় তিনজন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ ও ভোলাহাট উপজেলায় তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন ঘটনাগুলোর সত্যতা নিশ্চিত করেছে। শুক্রবার (৭ জুন) দুপুর আড়াইটা থেকে তিনটার মধ্যে ঝড়বৃষ্টির সময় বজ্রপাত হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার নাগরগোলা গ্রামের খাদেমুল (৫০), গাহন গ্রামের মনিকা (৩৫) ও  মান্দা উপজেলা ভোলাম গ্রামের শামসুল আলম (৩৪)।

চাপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় শিশুসহ দুজন ও ভোলাহাটে উপজেলায় একজন মারা যান। এ ছাড়া নওগাঁর বদলগাছী উপজেলার হাবিবুর রহমান ও আব্দুল খালেক নামের দুজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়।
নওগাঁর পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাফফর হোসেন জানান, ঝড়বৃষ্টির সময় বাড়ির পাশে আম কুড়াতে যায় নাগরগোলা গ্রামের খাদেমুল। এ সময় বজ্রপাত হলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।

এ সময় মনিকা নামের এক জন বাড়ির উঠানে ধানের খড় শুকানোর সময় বজ্রপাত হলে তার মৃত্যু হয়।  মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজ্জামেল হক জানান, বিকেলে ভোলাম গ্রামের শামসুল আলম ধান শুকানোর কাজ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাত ঘটলে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। 

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজ্জাদ হোসেন বলেন, দুপুর আড়াইটা থেকে তিনটার মধ্যে ঝড়বৃষ্টির সময় বজ্রপাত হলে শিবগঞ্জ উপজেলায় শিশুসহ দুজন মারা যান। এ সময় ভোলাহাটে উপজেলায় একজন মারা যাওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়।


মন্তব্য