যশোরে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে খোয়ালেন মোবাইল ফোন,নগদ অর্থসহ স্বর্ণালংকার

যশোর
  © ফাইল ছবি

যশোরে ডাক্তার দেখাতে এসে অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে শাহিনা খাতুন নামে এক রোগী খোয়ালেন তার মোবাইল ফোন,নগদ অর্থসহ স্বর্ণালংকার । এঘটনায় বৃহস্পতিবার (৬জুন) ভূক্তভোগী বাদী হয়ে যশোর কোতোয়ালী মডেল থানায় অজ্ঞাত নামা অজ্ঞান পার্টির দুই মহিলা সদস্যের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে ভুক্তভোগী , যশোর সদর উপজেলার বসুন্দিয়া কেফায়েত নগর গ্রামের, কাছেদ আলী মোল্লার স্ত্রী শাহিনা খাতুন (৪৫) উল্লেখ করেন। গত ২ জুন সকাল সাড়ে এগারোটায় ডাক্তার দেখানোর জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে যান। সেখানে ১০টাকার টিকিট কেটে ৬নং রুমে ডাক্তার দেখিয়ে বাইরে এলে, আগে থেকে ওত পেতে থাকা অজ্ঞান পার্টির দুই মহিলা সদস্য আমার পরিচিত বলে জানান, এরপর আমার প্রেসক্রিপশন দেখিয়া কমমূল্যে আমার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেবে বলে ইবনে সিনা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে যাওয়ার পর প্রথমে আমার কাছ থেকে পরীক্ষার ফি বাবদ ৫শ টাকা নেয়, এর কিছুক্ষণ পর চেতনা নাশক মেশানো একটি রুমাল দিয়ে আমার মুখের ঘাম মুছিয়ে দেয়। এরপর আমি জ্ঞান শূন্য হয়ে গেলে আমার কাছে থাকা নগদ ১২হাজার টাকা, একটি স্মার্ট ফোন, একটা স্বর্ণের আংটি এবং এক জোড়া কানের দুল নিয়ে আমাকে অজ্ঞান অবস্থায় ফেলে রেখে চলে যায়। 

এরপর স্থানীয়রা আমাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগের ভর্তি করেন। এ ঘটনায় ইবনে সিনা হাসপাতালে সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে কোতয়ালী থানায় একটা লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ