থানায় হামলা-ভাঙচুর করলো আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা 

পুলিশ
  © সংগৃহীত

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় মোস্তাক সিক্দার আওয়ামী লীগের এক কর্মীকে আটকের প্রতিবাদে থানা ঘেরাও করে হামলা-ভাঙচুর চালিয়েছে তার অনুসারীরা। এরপর পুলিশের সঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতামর্কীরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ৩৫ জন আহত হয়েছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। তবে তাৎক্ষণিক তাদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

রবিবার (৯ জুন) বিকেল ৩টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শৈলকুপা থানার ওসি শফিকুল ইসলাম চৌধুরী।

পুলিশ জানিয়েছে, শৈলকুপায় আওয়ামী লীগ কর্মী এজাহারভুক্ত আসামি ধলহরা চন্দ্র ইউনিয়নের ধাওড়া গ্রামের মোস্তাক সিক্দারকে পুলিশ রবিবার দুপুরে আটক করে। এতে ক্ষিপ্ত আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শৈলকুপা থানা ঘেরাও করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে।

এতে কয়েকজন পুলিশ সদস্য গুরুতর আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশও ফাঁকা গুলি ছুড়ে। এতে হামলাকারীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। এ ঘটনায় ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার বিকেলে আধিপত্য বিস্তর নিয়ে এলাকায় সংর্ষের ঘটনায় থানায় করা প্রতিপক্ষের অভিযোগে তাকে আটক করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) ইমরান জাকারিয়া বর্তমানের পরিস্থিতি শান্ত আছে জানিয়েছেন। বিকেল সাড়ে ৪টায় তিনি গণমাধ্যমকে বলেছেন, ১০ মিনিটের এ হামলা ঘটনায় অন্তত ৫ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। আটক করা হয়েছে দুজনকে।


মন্তব্য