চাঁদা তোলার হাতির আক্রমণে ব্যবসায়ীর মৃত্যু

হাতি
  © ফাইল ছবি

কিছুদিন আগে হাতি দিয়ে চাঁদা তোলা বা সার্কাসে ব্যবহার নিষিদ্ধ করে হাইকোর্ট। তবে এর পরেও চলছে হাতি দিয়ে চাঁদাবাজি। শুধু চাঁদাবাজিই নয়, কিশোরগঞ্জে হাতি দিয়ে চাঁদা তোলার সময় হাতির আক্রমণে গুরুতর আহত মো. মাসুদুর রহমান মিস্টন (৪৫) নামে এক ফার্মেসি মালিকের মৃত্যু হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (০২ জুলাই) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মিস্টনের মৃত্যু হয়।

এর আগে গতকাল সোমবার সন্ধ্যার দিকে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের নগুয়া বাসস্ট্যান্ডে নিজের মালিকানাধীন ফার্মেসিতে হাতি নিয়ে মাহুত আসলে চাঁদা দেন মাসুদুর রহমান মিস্টন। পরে ফার্মেসির সামনে তাঁর ওপর হামলা চালায় হাতিটি। গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে তাঁকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে কিশোরগঞ্জের শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

অবস্থার অবনতি হলে ওষুধ ব্যবসায়ী মিস্টনকে আজ ভোররাত সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেছিল স্বজনেরা।

এ ঘটনায় হাতিসহ মাহুত রিয়াজুল মোল্লাকে আটক করেছে পুলিশ। তিনি গোপালগঞ্জ জেলা সদরের পুলিশলাইন এলাকার বাসিন্দা।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এ ব্যাপারে অভিযোগের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ওসি।

নিহত মো. মাসুদুর রহমান মিস্টন ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলার সিংরইল গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি কাজের সূত্রে কিশোরগঞ্জ জেলা শহরের নগুয়া এতিমখানা কমপ্লেক্স সংলগ্ন এলাকায় বসবাস করছিলেন।

স্থানীয়রা জানায়, গতকাল সন্ধ্যায় জেলা শহরের নগুয়া বাসস্ট্যান্ডে নিজের মালিকানাধীন এআর ফার্মা নামক ফার্মেসিতে মো. মাসুদুর রহমান মিস্টন বসে ছিলেন। এ সময় একটি হাতি তাঁর ফার্মেসিতে গিয়ে টাকার জন্য শুঁড় এগিয়ে দিলে মিস্টন ১০ টাকা দেন। টাকা পেয়ে হাতিটি সামনে কিছুটা এগিয়ে যাওয়ার পর চাঁদা নিয়ে এক দোকানির সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়। এ সময় শোরগোল শুনে মো. মাসুদুর রহমান মিস্টন ফার্মেসি থেকে বের হলে ক্ষিপ্ত হাতিটি শুঁড় দিয়ে তাঁকে তুলে এনে ফার্মেসির সামনে সজোরে আছাড় মারে। এতে পাকা সড়কে পড়ে গিয়ে মাথায় গুরুতর আঘাত পান মো. মাসুদুর রহমান মিস্টন।


মন্তব্য