স্কুলে জরিমানা ও ছাড়পত্রের নোটিশ, অভিভাবক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে অসন্তোষ

শিক্ষার্থী
  © সংগৃৃহীত

অনুমতি না নিয়ে কোনো শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ে একদিন অনুপস্থিত থাকলে ৫০ টাকা, স্কুল পালালে ১০০ টাকা জরিমানা; টানা তিন দিন অনুপস্থিত থাকলে বাধ্যতামূলক ছাড়পত্র দেওয়া হবে। ফেনীর গিরিশ-অক্ষয় একাডেমির (জিএ একাডেমি) এমন এক নোটিশে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. তাজুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এমন ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা জানিয়েছেন, অনুপস্থিতির কারণে শিক্ষার্থীর কাছ থেকে জরিমানা আদায় বা ছাড়পত্র দেওয়ার কোন নিয়োম নেই। এছাড়া জেলার অন্য কোন প্রতিষ্ঠানে এমনটি চালু নেই।

ফারুখ হোসেন নামের নামের এক অভিভাবক বলেন, ‘অনুপস্থিতির জন্য বিষয়টি ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। তবে এর ফলে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ওপর মানসিক প্রভাব পড়বে।’

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, ‘শতভাগ উপস্থিতি, ভালো ফলাফল নিশ্চিত ও শৃঙ্খলা রক্ষার্থে পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্তে এ নিয়ম চালু করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানকে না জানিয়ে কোনো শিক্ষার্থী ক্লাসে অনুপস্থিত থাকলে জরিমানা আদায় করা হবে। পরপর তিনদিন অনুপস্থিত থাকলে ওই শিক্ষার্থীকে কোনো কারণ দর্শানো ছাড়াই ছাড়পত্র দেওয়া হবে।’

এ ধরণের বিধান আছে কিনা?- প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘শৃঙ্খলা রক্ষার্থে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদ এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। এটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর থেকে কার্যকর করা হয়েছে।’

জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শফী উল্লাহ বলেন, ‘অনুপস্থিতির কারণে শিক্ষার্থীর কাছ থেকে জরিমানা আদায় বা ছাড়পত্র দেওয়ার কোনো বিধান নেই। ক্ষেত্র বিশেষ শৃঙ্খলা রক্ষার্থে হয়তো জরিমানা আদায় করা পারে। তবে এভাবে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে এমন কিছু করার সুযোগ নেই। খোঁজ নিয়ে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


মন্তব্য