রিজার্ভ সংকটে বাংলাদেশের পাশে থাকবে চীন: রাষ্ট্রদূত

চীন-বাংলাদেশ
  © সংগৃৃহীত

বাংলাদেশে বড় ধরনের রিজার্ভ সংকট হলে অগ্রাধিকারভিত্তিতে চীন পাশে থাকবে বলে জানিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন।

আজ রবিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের সঙ্গে বৈঠক শেষে চীনা রাষ্ট্রদূত এ কথা জানান।

চীনা রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ রিজার্ভ নিয়ে বড় সংকটে পড়লে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে সাথে থাকবে চীন।

মিয়ানমারের রাখাইনে অস্ত্রবিরতির জন্য বেইজিং কাজ করছে বলে জানান চীনের রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, চীনের প্রত্যাশা রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের জন্য ঢাকা–ইয়াঙ্গুন কাজ চালিয়ে যাবে।

তিস্তা উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে চীন অঙ্গীকারবদ্ধ বলে জানান চীনের রাষ্ট্রদূত ইয়াও ওয়েন। তিনি বলেন, বাংলাদেশের সম্মতি পেলেই কাজ শুরু হবে।

ইয়াও ওয়েন বলেন, রাখাইনে অস্ত্রবিরতিতে মধ্যস্থতা করছে চীন। এই মুহূর্তে সংকট থাকলেও আমাদের আত্মবিশ্বাস থাকতে হবে চীন, বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের ত্রিপক্ষীয় সমঝোতার মাধ্যমে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু হবে। মিয়ানমার এরই মধ্যে চীনের মধ্যস্ততায় দেশটির তিনটি স্থানে অস্ত্রবিরতিতে রাজি হয়েছে।

চীনের রাষ্ট্রদূত ছাড়াও জাতিসংঘের আবাসিক সমন্বয়কারী গোয়েন লুইস ও নেপালের রাষ্ট্রদূত ঘনশ্যাম ভান্ডারি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন। এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ফ্রান্স ও জার্মানির রাষ্ট্রদূত।


মন্তব্য