বাংলাদেশের পর্যটন খাতে শ্রীলঙ্কার বিনিয়োগ চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী
  © সংগৃহীত

করোনাকালে অর্থনৈতিকভাবে প্রায় দেউলিয়া হয়ে গিয়েছিলো দক্ষিণ এশিয়ার ছোট্ট দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা। সে সময় দেশটিকে ২০০ মিলিয়ন সহায়তা দিয়েছিলো বাংলাদেশ সরকার। করোনা শেষ হওয়ার প্রায় এক বছরের মাথায় ফের অর্থনৈতিকভাবে ঘুরে দাঁড়ায় দেশটি। ইতোমধ্যেই বাংলাদেশের ঋণ সুদসহ পরিশোধ করেছে শ্রীলঙ্কা। এবার বাংলাদেশের পর্যটন খাতে শ্রীলঙ্কার বিনিয়োগ চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

আজ সোমবার ১০ জুন সকালে   শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট রনিল বিক্রমাসিংহের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে শেখ হাসিনা এই আহ্বান জানান।

বৈঠক শেষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ সাংবাদিকদের ব্রিফিংয়ে জানান, ‘পর্যটন খাতে এগিয়ে থাকা শ্রীলঙ্কার বিনিয়োগ বাংলাদেশের পর্যটন খাতে কীভাবে আসতে পারে তা নিয়ে দু’নেতা আলাপ আলোচনা করেন।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, দু’নেতা কৃষি এবং সমুদ্রে জাহাজ চলাচল সম্পর্কিত পারস্পরিক সহযোগিতার বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বৈঠকটি মূলত সৌজন্য সাক্ষাত হলেও দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।’

এসময় শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট তার দেশের সংকটময় মুহুর্তে আর্থিক সহযোগিতা দেওয়ার জন্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। বৈঠকে শেখ হাসিনা শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। জবাবে বিক্রমাসিংহে বলেন, বাংলাদেশ সফরের ব্যাপারে তার আকাঙ্ক্ষা আছে, তবে সামনে তার দেশে নির্বাচন।

পররাষ্ট্র সচিব (সিনিয়র) মাসুদ বিন মোমেন এবং প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব নাঈমুল ইসলাম খান ব্রিফিংয়ের সময় উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য