২৩ দিনে ২ বিলিয়ন ডলার পাঠালেন প্রবাসীরা

রেমিট্যান্স
  © ফাইল ছবি

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে স্বজনদের কাছে টাকা পাঠানো বাড়িয়ে দিয়েছিলেন প্রবাসীরা। এরই জেরে চলতি জুন মাসের প্রথম ২৩ দিনেই রেমিট্যান্স আয় দুই বিলিয়ন ডলার পার হয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, ১–২৩ জুন পর্যন্ত দেশের ব্যাংকখাতে রেমিট্যান্স এসেছে ২.০৫ বিলিয়ন ডলার। মাসের বাকি সাতদিনে আরও অন্তত ৩০০ মিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাওয়ার আশা করছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সে হিসেবে মাস শেষে রেমিট্যান্স ২.৩ বিলিয়ন ডলারের বেশি হতে পারে। এর আগে ২০২৩ সালের জুন মাসে রেমিট্যান্স পাওয়া গিয়েছিল ২.২ বিলিয়ন ডলার।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানান, বিনিময় হারে ক্রলিং পেগ প্রবর্তনের পর রেমিট্যান্স বাড়তে শুরু করেছে। ৮ মে প্রথমবারের মতো টাকাকে ইতিহাসের সর্বোচ্চ সাত টাকা অবমূল্যায়ন করে ডলারের আনুষ্ঠানিক মিডরেট ১১৭ টাকা করা হয়।

তিনি বলেন, তবে ব্যাংকগুলো চাইলে চাহিদা-যোগানের ভিত্তিতে এর চেয়ে কিছু বেশি দাম দিয়েও ডলার কেনাবেচা করতে পারছে। ফলে রেমিট্যান্স বাড়তে শুরু করেছে। গত মে মাস শেষে রেমিট্যান্স এসেছিল ২.২৫ বিলিয়ন ডলার।

বর্তমানে ব্যাংকগুলো রেমিট্যান্সের ডলার সংগ্রহ করছে ১১৭ টাকা ৮০ পয়সা থেকে ১১৮ টাকা ৩০ পয়সা দরে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের প্রথম ১১ মাসে রেমিট্যান্স ১.৯৬ বিলিয়ন ডলার বা প্রায় ১০ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

চলতি ২০২৩–২৪ অর্থবছরের জুলাই–মে মাসে প্রবাসীরা ২১.৩৭ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন, যা আগের অর্থবছরের (২০২২–২৩) একই সময়ে পাঠানো ১৯.৪১ বিলিয়ন ডলার থেকে বৃদ্ধি।


মন্তব্য