বাবা হলেন ‘টুয়েলভথ ফেল’ সিনেমার অভিনেতা মনোজ

‘টুয়েলভথ ফেল’
  © হিন্দুস্থান টাইমস (ফাইল ছবি)

এম সিনেমা করেই রীতিমতো তারকা বনে গেছেন অভিনেতা বিক্রান্ত ম্যাসি। এবার ভক্তদের সুখবর দিলেন এই তারকা। তাদের পরিবারে নতুন অতিথি আসার খবর দিলেন বিক্রান্ত ম্যাসি।

গতকাল বুধবার (৭ ফেব্রুয়ারি) পুত্র সন্তানের বাবা হলেন ‘টুয়েলভথ ফেল’ তারকা।

সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে নিজেই সুখবর জানিয়েছেন বিক্রান্ত। তার স্ত্রী অভিনেত্রী শীতল ঠাকুরও খবরটি শেয়ার করেছেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

ছেলের ছবি প্রকাশ্যে না আনলেও একটি কার্ড শেয়ার করেছেন তারা। তাতে লেখা, ‘৭.০২.২০২৪- আমরা এক হলাম। আমাদের ছেলের আগমন ঘোষণা করতে পেরে আমরা আনন্দ ও ভালোবাসায় উচ্ছ্বসিত। ভালোবাসা, শীতল আর বিক্রান্ত।’

ওয়েব সিরিজ ‘ব্রোকেন বাট বিউটিফুল’-এর প্রথম সিজনে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন শীতল আর বিক্রান্ত। সেখান থেকেই বন্ধুত্ব ও প্রেম। দীর্ঘ প্রেমের পর, ২০২২ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বিয়ে করেছিলেন বিক্রান্ত ও শীতল। এরপর ১৮ জানুয়ারি হিমাচল প্রদেশে সব নিয়মনীতি মেনে হয়েছিল সামাজিক বিয়ে।

২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বিক্রান্ত ঘোষণা করেছিলেন যে তিনি এবং শীতল তাদের প্রথম সন্তানের প্রত্যাশা করছেন। অবশেষে এই দম্পতির কোল আলো করে এসেছে তাদের প্রথম সন্তান। বিক্রম ও শীতলকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন ভক্ত ও সহশিল্পীরা।

টুয়েলভথ ফেইল সিনেমা

কিছু সংখ্যক সিনেমা থাকে যা অনেকদিন ধরে দর্শকদের মন এক রেশ রেখে যায়। গতবছর মুক্তি পাওয়া ‘টুয়েলভথ ফেইল‘ মুভিটিও দর্শকদের হৃদয়ে এমন এক অনুভূতির সৃস্টি করে দিয়েছে। যার রেশ থেকে যাবে বহুদিন। যখনই কেউ ভেঙে পড়বে, তখনই সিনেমার মনোজের মত নিজেকে ‘রিস্টার্ট’ বলে জীবন সংগ্রামে ঝাপিয়ে পড়বে।

আইপিএস অফিসার মনোজ কুমার শর্মা কে নিয়ে ঔপন্যাসিক অনুরাগ পাঠকের উপন্যাস ‘টুয়েলভথ ফেইল’ অবলম্বনে সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন নির্মাতা বিধু বিনোদ চোপড়া। সিনেমাটিতে দেখানো হয়েছে প্রত্যন্ত অঞ্চলের একটি গরিব ঘরের ছেলে মনোজ কিভাবে জীবন সংগ্রাম চালিয়ে আইপিএস অফিসার হয়েছেন। মূল চরিত্রে অর্থাৎ ‘মনোজ’ চরিত্রে অভিনয় করে ব্যাপক প্রশংসা পেয়েছেন অভিনেতা ‘বিক্রান্ত মেসি‘।

গল্পটা খুবই চিরচেনা। ভারতের নিম্নবিত্ত পরিবারের ছেলে মেয়েরা জীবন পরিবর্তনের জন্য আইপিএস অফিসার হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। জীবনের দুঃখ, দুর্দশা, দারিদ্র্য, কষ্ট এসব কিছু থেকে মুক্তি পেতে কৃষক অটোচালক দিনমজুরের সন্তানেরা কঠিন জীবন সংগ্রাম চালিয়ে যান। আর এরকম কোটি কোটি তরুণের প্রতিনিধি হয়ে পর্দায় এসেছেন মনোজ। আর এজন্যই তাদের হৃদয়ে জায়গা করে নেয় মনোজ চরিত্রটি। মনোজের মধ্যে যেন তারা নিজেকেই খুঁজে পেয়েছেন, আর এভাবেই তারা মনোজের সংগ্রামী গল্পের মধ্যে ডুবে গিয়েছেন।

সিনেমাটিতে বিক্রান্ত মেসির বিপরীতে অভিনয় করেছেন মেধা শংকর, যিনি বাস্তব জীবনের মনোজ কুমার শর্মার স্ত্রী আইআরএস কর্মকর্তা শ্রদ্ধা জ্যোশি চরিত্রে অভিনয় করে ছায়ার মত মনোজের পাশে থেকেছেন। শুধু তাই নয়,পার্শ্ব চরিত্রে যারা অভিনয় করেছেন তাদের অভিনয়ও ছিল চোখে পড়ার মতো। শুধু দর্শকদেরই নয়, সিনেমাটি বলিউড পাড়ার বিখ্যাত সব নির্মাতা ও অভিনেতাদেরও প্রশংসা কুড়াতে সক্ষম হয়েছে। তারা সবাই বিক্রান্ত মেসির এমন অভিনয় দক্ষতার প্রশংসা করেছেন।


মন্তব্য