পুলিশের সহায়তা বইমেলায় আসবেন মুশতাক-তিশা

খন্দকার মুশতাক
খন্দকার মুশতাক  © সংগৃহীত

খন্দকার মুশতাককে বই মেলা থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে, তিনি আর মেলায় যাবেন না, এমন খবর যখন ছড়িয়ে পড়েছে যখন- তখনই গণমাধ্যমকে মুশতাক জানালেন তিনি অবশ্যই মেলায় যাবেন। তার মেলায় যাওয়ার পরিবেশটা বাংলা একাডেমির নিশ্চিত করা উচিত। এ বিষয়ে তিনি বাংলা একাডেমির সঙ্গে কথা বলবেন। আর পুলিশ যদি সহায়তা করে তাহলে পুলিশের সাহায্য নিয়ে মেলায় যাবেন। 

এবার অমর একুশে গ্রন্থমেলায় খন্দকার মুশতাকের দুইটি বই বের হয়েছে। মুশতাক শনিবার দুপুরে বললেন, গত ৭ তারিখে আমার বই মেলায় এসেছি। সেদিন গিয়েছিলাম আর গতকাল গিয়েছি। সেখানে সবকিছুই ভালো ছিল, মেলায় যখন ঢুকছিলাম তখনও খুবই আনন্দময় পরিবেশ ছিল। একেকটি পরিবারের সকলেই আমাদের সঙ্গে ছবি তুলছিল। কিন্তু মেলায় যখন আমি তিশা ছিলাম, মানুষজনের সঙ্গে সেলফি তুলছিলাম কিংবা অটোগ্রাফ দিচ্ছিলাম- তখন কিছু মানুষ শ্লোগান তুললো, বলছিল- মুশতাক ভাই, মুশতাক ভাই। ভাবলাম কোনো রাজনৈতিক মিছিল শুরু হলো নাকি। পরে তারা বাজে আচরণ করায় বের হয়ে আসি আমরা। আমাদের কেউ বিতাড়িত করেনি।

ঢাকায় আমার কোনো ফ্ল্যাট নেই, বাড়ি নেই, ঢাকায় আমার কোনো ফ্ল্যাট নেই, বাড়ি নেই
যদিও এক ভিডিওবার্তায় মুশতাক বলছিলেন, কেউ মেলা থেকে চলে যেতেও বলেনি বা বিতাড়িত করেনি। আমি স্বেচ্ছায় আমার স্ত্রীকে নিয়ে মেলা থেকে বের হয়ে যাই। 

যেহেতু অনেক লোক ছিল তাই মেলায় দায়িত্বরত আনসার সদস্যরা আমাদের নিরাপত্তা দিয়ে গাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দিয়েছেন। মেলায় যেহেতু বই বেড়িয়েছে সেগুলো পাঠকের হাতে পৌঁছে দেওয়া দরকার এজন্য প্রকাশককে বলে এসেছি আমরা আসলে যেহেতু অনেক লোকের সমাগম হয়। প্রকৃত পাঠকরা বই কিনতে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন তাই আমরা আর মেলায় আসব না।

আরও পড়ুন: কোটি টাকার অবৈধ পেঁয়াজসহ গ্রেপ্তার ৮  

তবে তিনি পুলিশ ও বাংলা একাডেমির সহায়তা নিয়ে মেলায় যাবেন বলে আজ আবার গণমাধ্যমকে জানালেন।

জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মিজান পাবলিশার্সের সামনে ব্যাপক ভিড় ছিল দর্শনার্থীদের। মুশতাকের লেখা ‘তিশার ভালোবাসা’ এবং ‘তিশা অ্যান্ড মুশতাক’ বই হাতে নিয়ে পাঠকদের বই কিনতে উৎসাহিত করছিলেন মুশতাক-তিশা দম্পতি। হঠাৎ একদল দর্শনার্থী এসে তাদের ‘ভুয়া ভুয়া’ বলে তাড়া করেন। এসময় আনসার সদস্যরা  মুশতাক-তিশা দম্পতিকে নিরাপত্তা দিয়ে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউেটর গেট দিয়ে মেলা প্রাঙ্গণ থেকে বের হয়ে যেতে সাহায্য করেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে রাজধানীর মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির সদস্য খন্দকার মুশতাক আহমেদ একই কলেজের শিক্ষার্থী সিনথিয়া ইসলাম তিশাকে বিয়ে করে আলোচনায় আসেন। এসময় তারা ভালোবেসে একে অপরকে বিয়ে করেছেন বলে জানান। তাদের বিয়ের খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার ঝড় ওঠে।


মন্তব্য