শনিবার রাতে রাভিনার সঙ্গে যা ঘটেছিলো

রাভিনা
  © ফাইল ছবি

বলিউডের একসময়ের তুমুল জনপ্রিয় অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডন। এই বয়সে এসেও তার ক্রেজ ধরে রেখেছেন এই অভিনেত্রী। কেজিএফ-২ সিনেমায় ব্যাপক দাপট দেখান এই অভিনেত্রী। ফের প্রমাণ করেন তার অভিনয়ের প্রতিভা। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর সঙ্গে গতকাল রাতে ঘটে যায় এক অঘটন। অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডন ও তাঁর গাড়ির চালকের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে অভিনেত্রীর দাবি, তাঁর সঙ্গে কিছু নারী বাজে আচরণ করেছেন। গতকাল শনিবার গভীর রাতে অভিনেত্রীকে মুম্বাইয়ের বান্দ্রা এলাকায় তিনজন নারী ঘিরে ধরেন, সঙ্গে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজও করেন বলে রাভিনার অভিযোগ।

আবার ওই নারীদের থেকে অভিযোগ আসে, রাভিনার ড্রাইভার বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালিয়ে তাদের ধাক্কা দিয়েছেন। তারা আরও দাবি করেছেন, অভিনেত্রী তখন মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। এই ঘটনার পর গাড়ি থেকে বেরিয়ে এসে অভিযোগকারীদের উদ্দেশ্যে নানান কটূক্তি করেন তিনি। পাশাপাশি গায়েও হাত তোলেন বলে অভিযোগ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম দ্য ইকোনমিক টাইমসকে পুরো ঘটনা জানিয়েছে পুলিশ। এ বিষয়ে ডিসিপি রাজ তিলক রোশন সংবাদমাধ্যমটিকে বলেন, ‘অভিনেত্রীর ড্রাইভার গাড়ি পার্ক করছিলেন। সেই সময় অন্যদিক থেকে ওই তিন নারী আসছিলেন। গাড়িটি তাঁদের ধাক্কাও দেয়নি, তা সত্ত্বেও তাঁরা গাড়িটিকে উদ্দেশ্য করে চিৎকার করতে শুরু করেন। বিষয়টি নিয়ে তাঁদের মধ্যে গন্ডগোল শুরু হয়। সেটা ধীরে ধীরে আরও খারাপ দিকে যায়, শুরু হয় ঝগড়া। এ সময় রাভিনাও গাড়ি থেকে নেমে এসে কথা-কাটাকাটিতে জড়িয়ে পড়েন।’

ডিসিপি রাজ তিলক রোশন আরও বলেন, ‘দুই পক্ষই থানায় এসেছিলেন। আমরা তাঁদের অভিযোগ পৃথকভাবে শুনেছি। কারও শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন ছিল না, যদি গাড়িটি কাউকে ধাক্কা দিত তাহলে আমরা নিশ্চয়ই অভিযোগ গ্রহণ করতাম।’

এদিকে অভিনেত্রীর একটি ঘনিষ্ঠ সূত্র দ্য ইকোনমিক টাইমসকে বলেন, ‘ঘটনার সময় রাভিনা বাচ্চাদের সঙ্গে একা ছিলেন। তিনি কেবল তাঁর ড্রাইভারকে বাঁচানোর জন্য এগিয়ে আসেন। ওই সময় অন্য পক্ষ ছবি তোলা ও ভিডিও করা শুরু করে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, অভিনেত্রী পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু তাঁরা গালিগালাজ শুরু করায় পরিস্থিতি আরও জটিল হয়। এমনকি অভিযোগ করা হচ্ছে অভিনেত্রী মদ্যপ ছিলেন, কিন্তু এই কথাটাও সম্পূর্ণ মিথ্যা।’

ভাইরাল ফুটেজটিতে রাভিনাকে হট্টগোলের মধ্যে দেখা যায়। ভিডিওতে একজন অভিযোগকারীকে বলতে শোনা যায়, ‘তোমাকে জেলে রাত কাটাতে হবে। আমার নাক দিয়ে রক্ত পড়ছে।’ বিশৃঙ্খলার মধ্যে অভিনেত্রীকে বারবার অনুরোধ করতে শোনা যায়, ‘ধাক্কা দেবেন না। দয়া করে আমাকে আঘাত করবেন না।’


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ