আবেদ আলীকে নিয়ে অভিনেত্রী সোহানা সাবা

'যারা দেখিয়ে দেখিয়ে ধর্মচর্চার নামে বাড়াবাড়ি করে তারা বাটপার'

সোহানা
  © ফাইল ছবি

ঢাকাই সিনেমার আলোচিত অভিনেত্রী ও মডেল সোহানা সাবা। অভিনয়ের পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সরব থাকেন এই অভিনেত্রী। তুলে ধরেন বিভিন্ন অনিয়ম ও নিজের ভালো লাগা, মন্দ লাগার কথা। এবার পিএসসির প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আলোচনায় আসা সরকারি কর্মকমিশনের (পিএসসি) সাবেক চেয়ারম্যানের গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলীকে নিয়ে একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী।

আজ সোমবার (৮ জুলাই) ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে আবেদ আলীসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সোহানা সাবা নামের ফেসবুক পেজে আবেদ আলীকে নিয়ে করা এক পোস্ট শেয়ার করেছেন, যেখানে লেখা ছিলো, যারা দেখিয়ে দেখিয়ে ধর্মচর্চার নামে বাড়াবাড়ি করে, পাশে মসজিদ কিংবা নামাজের স্থান রেখে রাস্তায়, খেলার মাঠে, সমুদ্র তটে নামাজ পড়ে ছবি দেয় সোশাল মিডিয়ায়, এদের মাঝে আমি কোন ভালোমানুষ দেখি না। সবগুলোই বাটপার।

এরপর তিনি লেখেন, যারা শুক্রবার “জুম্মা মুবারক” বলে ফেসবুকে পোস্ট দেয়, আর যারা নিজের আমলনামা বাদ দিয়ে অন্যদের পোস্টে কমেন্ট করে -পরকালে দোজখে যাবে!! আর দান খয়রাতের ছবি-হিসাব প্রচার করে মিডিয়া ও সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেইগুলোকেও আমার একই ভন্ড মনে হয়।

abed

তবে শুধু এই অভিনেত্রী একাই নন, অনেক শোবিজ তারকা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ ছবি সহ আবেদ আলীর নানা সময়ের নানা কর্মকাণ্ড নিয়ে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন।

উল্লেখ্য, প্রশ্নফাঁস কাণ্ডে গাড়িচালক আবেদ আলীর নাম প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাকে নিয়ে শুরু হয়েছে নানান আলোচনা। ফেসবুকে সৈয়দ আবেদ আলী এবং তার ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমানকে বেশ সরব দেখা যায়। এছাড়াও সৈয়দ আবেদ আলী মাদারীপুরের ডাসার উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পেয়েছেন। ফেসবুকে তাদের জীবনযাপন এবং বিভিন্ন কর্মসূচির ছবি দেখে ধারণা করা কঠিন যে তিনি পিএসসির সাবেক চেয়ারম্যানের ড্রাইভার ছিলেন। একজন সামান্য গাড়িচালক হয়েও কীভাবে এত সম্পদ এবং অর্থবিত্তের মালিক বনে গেছেন, তা যেন এখন সবার কাছে পরিষ্কার।


মন্তব্য