উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহত অ্যাপোলো-৮ এর নভোচারী

দুর্ঘটনা
  © ফাইল ছবি

উড়োজাহাজ দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন অ্যাপোলো–৮ এর সদস্য ও মার্কিন নভোচারী উইলিয়াম অ্যান্ডার্স। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৯০ বছর। উইলিয়াম অ্যান্ডার্সের নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। খবর এএফপির।

এক প্রতিবেদনে এএফপি জানিয়েছে, গতকাল শুক্রবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ওয়াশিংটন উপকূলে একটি ছোট উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়েছে। উড়োজাহাজটি অ্যান্ডার্স নিজেই চালাচ্ছিলেন। এ তথ্য জানিয়েছেন ওয়াশিংটন অ্যান্ডার্সের ছেলে গ্রেগরি অ্যান্ডার্স।

এদিকে সান হুয়ান কাউন্টি শেরিফ এরিক পিটার এএফপিকে জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলে উদ্ধারকারী দল পাঠানো হয়েছে। তবে এখনও মরদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি।

তবে বিবিসি জানিয়েছে, উদ্ধারকারী বিভিন্ন সংস্থার ঘণ্টাখানেক ধরে অনুসন্ধানের পর উইলিয়াম অ্যান্ডার্সের মরদেহ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কোস্ট গার্ড। 

১৯৬৮ সালে চন্দ্রযান অ্যাপোলো–৮ মিশনের সদস্য ছিলেন অ্যান্ডার্স। তাঁর সঙ্গে আরও ছিলেন নভোচারী ফ্রাঙ্ক বোরম্যান ও জেমস লাভেল। চাঁদের কক্ষপথে তাঁরা দশবার প্রদক্ষিণ করেন। তবে ল্যান্ড করেননি। এরপর সফলভাবে পৃথিবীতে ফিরে আসেন।

ওই সময়ে মহাকাশ থেকে ঐতিহাসিক আর্থরাইজের ছবি তুলেছিলেন অ্যান্ডার্স। ছবিটির বিশেষত্ব হচ্ছে, এর সামনের অংশে চাঁদের পৃষ্ঠ দেখা যায়।

১৯৩৩ সালের ১৭ অক্টোবর হংকংয়ে জন্মেছিলেন নাসার এই নভোচারী। ১৯৫৫ সালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নেভাল একাডেমি থেকে স্নাতকের পর নৌবাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত হন।

অ্যান্ডার্সের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন নাসার প্রশাসক বিল নেলসন। গতকাল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে দেওয়া পোস্টে তিনি বলেন, ‘পৃথিবীর মানুষের জন্য চমৎকার উপহার দিয়ে গেছেন অ্যান্ডার্স। তিনি চাঁদের কাছাকাছি স্থানের অসাধারন কিছু ছবি তুলেছিলেন। আমরা নিঃসন্দেহে তাঁর অভাব বোধ করব।’


মন্তব্য