জাতিসঙ্ঘে উগান্ডার প্রতিনিধি অ্যাডোনিয়া আয়েবারে

আইসিজের রায়ের বিরুদ্ধে ভোট দেওয়া ব্যক্তি উগান্ডার প্রতিনিধিত্ব করে না

আইসিজে
রায়ের পর আইসিজের সামনে ফিলিস্তিনিপন্থীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন  © এপি

ফিলিস্তিনের অধিকৃত গাজায় গণহত্যা ইস্যুতে গতকাল শুক্রবার আইসিজের (আন্তর্জাতিক বিচার আদালত) পদক্ষেপের বিরুদ্ধে যে ব্যক্তি ভোট দিয়েছেন তিনি উগান্ডার প্রতিনিধিত্ব করেন না বলে জানিয়েছে দেশটি।

আজ শনিবার (২৭ জানুয়ারি) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, জাতিসঙ্ঘে উগান্ডার প্রতিনিধি বলেছেন যে- উগান্ডার একজন বিচারক যিনি ইসরাইলের বিরুদ্ধে আইসিজে মামলায় দক্ষিণ আফ্রিকার চাওয়া সমস্ত অস্থায়ী পদক্ষেপের বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন তিনি দেশটির প্রতিনিধিত্ব করেন না।

উগান্ডার ওই বিচারকের নাম জুলিয়া সেবুতিন্দে। তিনি আন্তর্জাতিক আদালতের ১৭ জন বিচারপতির মধ্যে একমাত্র ব্যক্তি ছিলেন যিনি ইসরাইলকে যে ছয়টি অস্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহণের আদেশ দেয়া হয়েছিল তার বিরুদ্ধে ভোট দিয়েছেন।

জাতিসঙ্ঘে উগান্ডার প্রতিনিধি অ্যাডোনিয়া আয়েবারে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সের এক পোস্টে বলেছেন, ‘আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে বিচারপতি সেবুতিন্দের রায় ফিলিস্তিনের পরিস্থিতি সম্পর্কে উগান্ডা সরকারের অবস্থানের প্রতিনিধিত্ব করে না’।

উগান্ডা জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের সদস্য এবং এই মাসের শুরুতে কাম্পালায় ফোরামের সবচেয়ে সাম্প্রতিক বৈঠকের আয়োজন করেছিল। ওই সময়ে অংশগ্রহণকারীরা গাজায় ইসরাইলের যুদ্ধের তীব্র নিন্দা করেছিল।

এদিকে গাজায় ইসরাইলের গণহত্যা বন্ধ করতে দক্ষিণ আফ্রিকার মামলার রায়ে ছয়টি নির্দেশনা দিয়েছে আন্তর্জাতিক বিচার আদালত।

এগুলো হলো :
১. আদালত বলেছে, এই মামলায় আদেশ দেয়ার এখতিয়ার রয়েছে তাদের।

২. আদালত গণহত্যা প্রতিরোধ করতে, গণহত্যার উস্কানির শাস্তি দিতে নির্দেশ দিয়েছে ইসরাইলকে।

৩. গণহত্যা বন্ধ করতে সব পদক্ষেপ গ্রহণ করতে ইসরাইলকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

৪. অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় আরো মানবিক সাহায্য পাঠানোর ব্যবস্থা করতে ইসরাইলকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

৫. আদালত ফিলিস্তিনিদের রক্ষা করতে আরো পদক্ষেপ গ্রহণ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছে। তবে যুদ্ধবিরতির নির্দেশ দেয়নি।

৬. এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিল করার জন্য ইসরাইলকে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আন্তর্জাতিক আদালতের এই রায়ে খুশি হয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। আর হতাশ হয়েছে ইসরাইল। কারণ দক্ষিণ আফ্রিকার যুক্তি মেনে নিয়েছে আদালত। তবে দক্ষিণ আফ্রিকা অবিলম্বে গাজায় যুদ্ধবিরতির যে আদেশ দিতে বলেছিল আদালতকে, তা দেয়া হয়নি। এটা তাদের জন্য পুরোপুরি জয় আনেনি।

এ রায়ের প্রতিক্রিয়ায় ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, ইসরাইল ‘আন্তর্জাতিক আইন মেনে নিজেদের এবং নিজেদের নাগরিকদের রক্ষা করতে থাকবে’।

ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘নিরঙ্কুশ বিজয় না হওয়া পর্যন্ত’ এবং ‘সমস্ত বন্দী ফিরে না আসা পর্যন্ত’ ইসরাইল এই যুদ্ধ চালিয়ে যাবে।

আইসিজের এই রায়ে গাজায় গণহত্যামূলক কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে ইসরাইলকে অবশ্যই সব ব্যবস্থা নিতে হবে বলে বলা হয়েছে।

তবে আইসিজে গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির বিষয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার অনুরোধের সাথে একমত হননি।

প্রসঙ্গত, গত ৭ অক্টোবর থেকে গাজায় ব্যাপক হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে দখলদার ইসরায়েলি বাহিনী। তাদের বর্বর হামলায় এখন পর্যন্ত ২৬ হাজার ২৭৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৬৪ হাজার ৭৯৭ জন। এছাড়া উদ্বাস্তু হয়েছেন গাজার ১৯ লাখ বাসিন্দা। সেখানে এখন দুর্ভিক্ষ বিরাজ করছে। খাদ্য, পানি, চিকিৎসা, বিদ্যুৎ, ইন্টারনেট সংযগ কোন কিছুই ঠিকমতো পাচ্ছে না ২৩ লাখ মানুষের গাজা উপত্যকা। 

সূত্র : আল-জাজিরা


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ