কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য বড় দুঃসংবাদ

কুয়েতে
  © ফাইল ফটো

কুয়েতে অবৈধ অভিবাসীরা চরম অনিশ্চয়তায় পড়েছেন। আবাসন ও শ্রম আইন লঙ্ঘন করে অবস্থান করা বিদেশিদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছে দেশটি। একের পর এক করা হচ্ছে অভিযান। ইতিমধ্যে পাঁচ শতাধিক অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া তাদের সহায়তাকারী কুয়েতি নাগরিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা এসেছে। আবাসন ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের দায়ে কুয়েতে তাদেরকে আটক করা হয়। কুয়েতের আইনশৃঙ্খলাবাহিনী গত তিন সপ্তাহে দেশটির বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করেছে। 

দেশটির সংবাদমাধ্যম বলছে, চলতি সপ্তাহে জেলিব আল শুইউখ, আল ফারওয়ানিয়া এবং আল ফাহাহিল এলাকায় নিরাপত্তা অভিযান চালিয়ে কয়েকটি দেশের ১২০ জন নাগরিককে আটক করা হয়েছে। অবৈধভাবে কুয়েতে অবস্থানের কারণে তাদের আটক করা হয়।

কুয়েতের একটি নিরাপত্তা সূত্র বলেছে, ‘অনিয়মিত শ্রমিক, আবাসন ও শ্রম আইন লঙ্ঘনকারীদের শনাক্ত এবং দেশ থেকে বিতাড়িত করার লক্ষ্যে কুয়েতজুড়ে অভিযান চলমান আছে।’ সম্প্রতি অবৈধ বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কুয়েত। একই সঙ্গে অবৈধ প্রবাসীদের আশ্রয়দাতাকেও দেশটি থেকে ফেরত পাঠানোর হুমকি দেওয়া হয়েছে।

দেশটির নিরাপত্তা সূত্র বলছে, অবৈধ প্রবাসীদের বেআইনিভাবে আশ্রয়দাতা ব্যক্তি কিংবা চাকরিদাতা কোম্পানির বিরুদ্ধেও আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে। গত বছর কুয়েতের আবাসন ও শ্রম আইন লঙ্ঘনের পাশাপাশি বিভিন্ন অপরাধে জড়িত থাকার অভিযোগে রেকর্ড ৪২ হাজার প্রবাসীকে নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

দেশটির কর্তৃপক্ষ চলতি মাসের শুরুর দিকে সরকারি এক আদেশ স্থগিত করার ঘোষণা দিয়েছে। এর ফলে ২০২০ সালের আগে দেশটিতে পৌঁছানো অবৈধ প্রবাসীরা নির্দিষ্ট জরিমানা প্রদানের বিনিময়ে দেশটিতে বৈধ হওয়ার যে সুযোগ পেতেন, তা থেকে বঞ্চিত হবেন। মধ্যপ্রাচ্যের তেল ও গ্যাস সমৃদ্ধ কুয়েতের মোট জনসংখ্যা ৪৬ লাখ। এর মধ্যে কেবল বিদেশিই আছেন ৩২ লাখ।


মন্তব্য