অধিকৃত পশ্চিম তীরে

ফিলিস্তিনি ছদ্মবেশে হাসপাতালে ঢুকে ৩ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করল ইসরায়েল

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন
  © সংগৃহীত

গত ৭ অক্টোবর গাজায় বর্বর হামলা চালিয়ে যাচ্ছে দখলদার ইসরায়েল। পাশাপাশি অধিকৃত পশ্চিম তীরেও হামলা চালাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের বিষফোঁড়া এ দেশটি। এবার বর্বরতার চরম সীমায় অতিক্রম করলো দেশটি। ফিলিস্তিনি চিকিৎসক ও বেসামরিক মানুষের বেশে পশ্চিম তীরের জেনিন শহরে একটি হাসপাতালে ঢুকে তিনজনকে হত্যা করেছে ইসরায়েলি বিশেষ বাহিনী।  

আজ মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) এ নারকীয় ঘটনা ঘটায় দখলদার বাহিনী।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র নাসের কানানি ইবনে সিনা হাসপাতালে ইসরায়েলি আক্রমণের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, এই সন্ত্রাসী পদক্ষেপের ব্যাপারে বিশ্বের দেশ ও আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো উদাসীন থাকবে না বলে আশা করছি। এই ‘বর্বরোচিত কর্মকাণ্ড’ সন্ত্রাসবাদকে স্বাভাবিক করার ক্ষেত্র তৈরি করতে পারে। এই ঘটনাকে বিশ্ব সম্প্রদায়ের জন্য একটি সতর্কবার্তা হিসেবে চিহ্নিত করা উচিত। 

কানানি হাসপাতালে নিহত তিনজনকে ‘আহত ফিলিস্তিনি’ বলে উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেন, এটা দুঃখজনক যে ইসরায়েলের সমর্থকরা ‘দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনি জাতির বৈধ প্রতিরক্ষার’ নিন্দা জানাচ্ছে। অন্যদিকে ‘ইহুদিবাদীদের গণহত্যা মেশিন’ এগিয়ে যাওয়ার সময় নীরব ভূমিকা পালন করছে।

এদিকে অনলাইনে ছড়িয়ে পড়া হাসপাতালের সিসিটিভির ফুটেজে দেখা গেছে, বাহিনীর প্রায় ১২ জন ছদ্মবেশে ইবনে সিনা হাসপাতালে ঢুকে পড়েছেন। সেখানে তিনজন নারীর বেশে আর দুজন ছিলেন চিকিৎসকের বেশে। তারা অস্ত্র হাতে হাসপাতালের বারান্দা দিয়ে ছোটাছুটি করছেন।  

সূত্র: আল জাজিরা


মন্তব্য