ফ্রান্সে আশ্রয় আবেদনে শীর্ষে আফগানিস্তান, দ্বিতীয় বাংলাদেশ

ফ্রান্স
  © ফাইল ছবি

ফ্রান্সের ২০২৩ সালের প্রাথমিক আশ্রয় পরিসংখ্যানে সবচেয়ে বেশি আবেদন করেছে তালেবান শাসিত দেশ আফগানিস্তানের নাগরিকেরা। এ তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে আছে বাংলাদেশ। দেশটিতে গত বছর সর্বমোট ১ লাখ ৪২ হাজার আশ্রয় আবেদন জমা পড়েছে। 

শরণার্থী ও রাষ্ট্রহীনদের জন্য নির্ধারিত ফরাসি দপ্তর অফপ্রার এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়। অফপ্রা জানায়, ২০২৩ সালে মোট ৮ হাজার ৬০০ জন বাংলাদেশি ফ্রান্সে আশ্রয়ের আবেদন করেছেন।

টানা ছয়বারের মতো শীর্ষে রয়েছে আফগান আশ্রয় প্রার্থীরা। ফরাসি আশ্রয় বিষয়ক দপ্তরের পরিসংখ্যান বলছে, ২০২৩ সালেও আশ্রয় আবেদনে শীর্ষে রয়েছেন আফগানরা। ১৭ হাজার ৫০০টিরও বেশি আবেদন জমা দিয়েছেন তারা। ২০২২ সালে আফগানিস্তানের আবদনের প্রায় ৬৮ দশমিক ৯ শতাংশ আবেদনের অনুমোদন দেয় ফ্রান্স।

অফপ্রা জানিয়েছে, ২০২২ সালের তুলনায় গত বছর ফ্রান্সে আশ্রয় আবেদন বেড়েছে ৮ দশমিক ৬ শতাংশ। ২০২৩ সালে নথিভুক্ত হওয়া মোট আবেদনের মধ্যে এক লাখ ৩৬ হাজার ৭০০টিরও বেশি আবেদনের সিদ্ধান্ত জানানো হয়েছে। এর যার মধ্যে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত পেয়েছে প্রায় ৩৩ শতাংশ আবেদন। ২০২২ সালের তুলনায় এই হার অন্তত চার শতাংশ বেশি।

এছাড়া ৮ হাজার ৫০০ আবেদন এসেছে তুরস্ক থেকে যাওয়া আশ্রয়প্রার্থীদের থেকে। ফলে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছেন তুরস্ক আর চতুর্থ দেশ কঙ্গো। সাত হাজার আবেদন নিয়ে আফ্রিকার আরেক দেশ গিনির নাগরিকরা রয়েছেন পাঁচ নম্বরে।

২০২২ সালে অফপ্রা আগের বছরের আবেদনসহ মোট এক লাখ ৩৪ হাজার ৫০০টি আশ্রয় আবেদনের সিদ্ধান্ত প্রদান করেছে৷ 

প্যারিস অঞ্চলে অবস্থিত অফপ্রার স্থায়ী কার্যালয়, ফ্রান্সের বিভিন্ন শহরে ১৮টি বিশেষ কার্যক্রম, ফরাসি মূল ভূখণ্ডের বাইরে অবস্থিত প্রশাসনিক অঞ্চলগুলোতে ১১টি কার্যক্রমের মাধ্যমে এত বিপুল সংখ্যক আবেদনের সিদ্ধান্ত দিতে সক্ষম হয়েছে অফপ্রা৷-চ্যানেল২৪


মন্তব্য