প্রেসিডেন্ট মুইজ্জুকে মোদির কাছে ক্ষমা চাইতে বললেন বিরোধী নেতা

মুইজ্জু
  © ফাইল ছবি

ইন্ডিয়া আউট স্লোগানেই মালদ্বীপের ক্ষমতায় আসেন দেশটির বর্তমান প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুইজ্জু। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার পর থেকেই বিরোধী দলসহ পাশ্ববর্তী দেশের নানামুখী চাপে পড়েছেন মুইজ্জু। ভারতের সেনাদেরকে মালদ্বীপ থেকে বেরিয়ে যেতে বলার পর সর্বশেষ নিজ দলের তিন এমপি মোদিকে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দিয়ে চাপ আরও বৃদ্ধি পায়।  

এবার মালদ্বীপ জুমহুরি পার্টির (জেপি) নেতা কাসিম ইব্রাহিম মালদিভিয়ান প্রেসিডেন্ট মোহামেদ মুইজ্জুকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দেশটির জনগণের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। 

আজ মঙ্গলবার (৩০ জানুয়ারি) মালদ্বীপের বিরোধী দলীয় নেতার পক্ষে থেকে এই আহ্বান জানানো হয়। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়। 

মালদ্বীপের প্রধান বিরোধী দল মালদিভিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টি (এমডিপি) মুইজ্জুর বিরুদ্ধে অভিশংসনের প্রক্রিয়া শুরুর পরিকল্পনা জানানোর পরই এই আহ্বান জানালেন কাসিম।  

তিনি বলেন, ‘আমি প্রেসিডেন্ট মুইজ্জুকে চীন সফরের পরে তার মন্তব্যের বিষয়ে ভারত সরকার এবং প্রধানমন্ত্রী মোদির কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

জেপি নেতা কাসিম বলেন, ‘কোনো দেশ সম্পর্কে বিশেষ করে প্রতিবেশী দেশ সম্পর্কে আমাদের এমনভাবে কথা বলা উচিত নয়, যা সম্পর্ককে প্রভাবিত করে। আমাদের রাষ্ট্রের প্রতি আমাদের একটি বাধ্যবাধকতা রয়েছে যা অবশ্যই বিবেচনা করা উচিত।’

সম্প্রতি চীনের একটি গোয়েন্দা জাহাজকে মালেতে নোঙর করার অনুমতি দিয়েছে মুইজ্জুর সরকার। এর পর থেকে মুইজ্জুর বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে শুরু করে বিরোধী দলগুলো। 

গত বছরের অক্টোবরে ৫৪ শতাংশ ভোটে জিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন মোহামেদ মুইজ্জু। এরপরই তিনি জানিয়ে দেন, মালদ্বীপে অবস্থানকারী ৮৮ ভারতীয় সেনাকে দেশে ফিরে যেতে হবে। পরে তাঁর সরকার ১৫ মার্চ সময়সীমাও বেঁধে দেয়।

মুইজ্জুর অতিরিক্ত ভারতবিরোধী অবস্থান মালদ্বীপকে গুরুতর বিপদের মুখোমুখি দাঁড় করাতে পারে বলে মনে করছেন প্রধান দুই বিরোধী দল।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ