১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে আইন চালু: ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপে ঘুরতে দিতে হবে কর

ইন্দোনেশিয়া
  © দ্য এশিয়ান প্যারেন্টস (ফাইল ছবি)

জনসংখ্যায় বিশ্বের বৃহত্তম মুশলিম দেশ ইন্দোনেশিয়ার সুন্দরতম দ্বীপ বালি। বিশ্বের লাখ লাখ পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় একটি জায়গা হলো এই বালি দ্বীপ। প্রতিবছর লাখ লাখ মানুষ এই দ্বীপটিতে ভ্রমণ করে থাকেন। দ্বীপটিতে ঘুরতে আসা মানুষদের জন্য নতুন নিয়ম চালু করেছে দেশটির সরকার। 

এখন থেকে ইন্দোনেশিয়ার বালিতে ঘুরতে হলে বিদেশি পর্যটকদের কর দিতে হবে। ঘোষণা অনুযায়ী, বালিতে প্রবেশের আগে ভ্রমণ কর ১ লাখ ৫০ হাজার রুপিয়া (১২.৮০ ইউএস ডলার) পরিশোধ করে এন্ট্রি কার্ড নিতে হবে বিদেশি পর্যটকদের।

দ্য স্ট্রেইট টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এছাড়া দ্য স্টারের প্রতিবেদনও একই তথ্য জানা যায়।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে এ নতুন নিয়ম চালু হবে। নতুন ভ্রমণ কর বালির মূল ভূখণ্ড এবং এর আশেপাশের দ্বীপ যেমন—নুসা পেনিডা, নুসা লেম্বোঙ্গান এবং নুসা সেনিনগান ভ্রমণকারীদের জন্য প্রযোজ্য হবে। শিশুরাও এ ট্যাক্সের আওতায় থাকবে।

এর আগে, বিমানবন্দরের কাউন্টার থেকে মাত্র ২৩ সেকেন্ডের মধ্যে ভ্রমণ কর পরিশোধ করে 'এন্ট্রি কার্ড' নেওয়া যাবে এমন ঘোষণা এলেও নতুন বিজ্ঞপ্তিতে পর্যটকদের বালি রওনা হওয়ার আগে 'লাভ বালি' ওয়েবসাইট বা অ্যাপের মাধ্যমে কর পরিশোধ করতে উত্সাহিত করা হয়েছে।

কর পরিশোধের পর পর্যটকরা তাদের ই-মেইলে একটি ভাউচার পাবেন। বালি বিমানবন্দর বা সমুদ্রবন্দরে পৌঁছানোর পর ফোনে সেই ভাউটারটি স্ক্যান করা হবে।

এই ভ্রমণ কর পর্যটন পরিষেবার উন্নতি, বালির সংস্কৃতি সংরক্ষণ এবং পরিবেশ সংরক্ষণে ব্যবহার করা হবে বলে কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে।

সম্প্রতি বালিতে স্থানীয় ও বিদেশি পর্যটকদের মধ্যে উত্তেজনার ঘটনা বেড়েছে। প্রায়ই পর্যটকের বেআইনি কাজ, ধর্মীয় স্থাপনাকে অসম্মান করা, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় গাড়ি চালানো, ক্রিপ্টোকারেন্সিতে অবৈধভাবে পরিষেবার জন্য অর্থ প্রদানের মতো খবর পাওয়া গেছে।

তবে বালির পর্যটন কর্তৃপক্ষের প্রত্যাশা, ২০২৪ সালে সাত মিলিয়ন পর্যটক বালিতে ঘুরতে আসবে। ২০২৩ সালে ৫.২ মিলিয়ন বিদেশি পর্যটক দ্বীপগুলো ভ্রমণ করে।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ