সৌদিতে ভারী বৃষ্টিপাত; মক্কা-মদীনায় রেড এলার্ট জারি

সৌদি
  © সংগৃহীত

বেশ কয়েকদিন ধরেই সৌদি আরবে ভারী বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। সেইসঙ্গে বজ্রপাত ও শিলাবৃষ্টিও হয়েছে। এর ফলে দেখা দিয়েছে বন্যার আশঙ্কা। উদ্ভূত পরিস্তিতিতে মক্কা, মদীনা ও তাবুকসহ বেশ কয়েকটি শহরে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। ইতিমধ্যে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে রাজধানী রিয়াদসহ বেশ কয়েকটি শহরের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গালফ নিউজ জানিয়েছে, রাজধানী রিয়াদ, বন্দরনগরী জেদ্দায় গত মঙ্গলবার থেকে টানা বৃষ্টি হচ্ছে। প্রবল বৃষ্টিপাত হচ্ছে কাসিম, হাফর আল বাতিন ও এর আশপাশের বেশ কয়েকটি অঞ্চলে। এসব এলাকার স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস স্থগিত করা হয়েছে।

সৌদির আবহাওয়া দপ্তর ন্যাশনাল সেন্টার অব মেটিওরোলজি (এনসিএম) জানিয়েছে, প্রতিকূল আবহাওয়া, ভারী বর্ষণ ও বন্যার আশঙ্কায় তাবুকসহ উত্তরাঞ্চলে সর্বোচ্চ সতর্কতা হিসেবে রেড অ্যালার্ট জারি করা হলো। 

জনসাধারণকে সতর্ক করে আবহাওয়া দপ্তর বলেছে, আগামী আরও কয়েক দিন উচ্চ-গতির বাতাস, দৃশ্যমানতা হ্রাস, শিলাবৃষ্টি এবং আকস্মিক বন্যার হতে পারে। এ ছাড়া তীব্র বাতাস ধূলিঝড় ও শিলাবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এসব কারণে মদিনা, তাবুক, মক্কা ও উত্তর দিকের উপকূলীয় অঞ্চলের বাসিন্দাদের চরম সতর্কত থাকতে বলা হচ্ছে।

এদিকে সৌদির সিভিল ডিফেন্স অফিসও জনসাধারণকে ‘চরম সতর্কতা’ অবলম্বন করার আহ্বান জানিয়েছে। জনসাধারণকে নিরাপদ আশ্রয়ে থাকা ও বন্যা–প্রবণ এলাকা এড়িয়ে চলার অনুরোধ করেছে সিভিল ডিফেন্স।

সিভিল ডিফেন্সের জেনারেল ডিরেক্টরেট ২১-২৫ মার্চ পর্যন্ত আবহাওয়ার পূর্বাভাস দিয়ে একটি সতর্কতামূলক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, মক্কা অঞ্চলের তুরবাহ, রানিয়াহ, আল মাওইয়া, আল খুরমাহ এবং আল আরদিয়াতসহ বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া আল বাহা, আসির, জাজান, আল জুফ, হাইল, আল কাশিম, ইস্টার্ন প্রভিন্সসহ উত্তরের সীমান্ত এলাকাগুলোতে ভারী বৃষ্টিপাত হতে পারে।


মন্তব্য