দুবাইয়ে ট্যুরিস্ট ভিসায় গিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি; হাতেনাতে ধরা ২০২

দুবাই
  © খালিজ টাইমস

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যতম ধনী রাষ্ট্র সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির বিখ্যাত শহর দুবাইয়ে পবিত্র রমজান মাসের প্রথম দুই সপ্তাহে ২০২ জন ভিক্ষুককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যার মধ্যে বেশিরভাগই ট্যুরিস্ট ভিসায় দুবাইয়ে গিয়েছিলেন। তবে পুলিশের ভিক্ষা বিরোধী বিশেষ অভিযানে হাতেনাতে ধরা পড়েছেন তারা।

আজ বুধবার (২৭ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস।

দুবাই পুলিশের কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার আলী সালেম আল সামসি জানিয়েছেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে অধিক অর্থ পাওয়ার আসায় ট্যুরিস্ট ভিসায় গিয়ে ভিক্ষাবৃত্তি করছিলেন আটককৃত এসব ভিক্ষুক। তারা মূলত পেশাদার ভিক্ষুক নন। রমজান মাসে ধনীরা দুস্থদের সহায়তা করে থাকেন; এই সুযোগটি কাজে লাগিয়ে ভিক্ষুক সেজে তারা প্রতারণা করছিলেন।

রমজানের প্রথম দুই সপ্তাহে যে ২০২ ভিক্ষুককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের মধ্যে পুরুষ হলেন ১১২ জন। আর নারী ৯০ জন।

দুবাইয়ে ভিক্ষাবিরোধী কঠোর আইন রয়েছে। এখানে ভিক্ষা নিষিদ্ধ করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে ভিক্ষা প্রদান না করতেও উদ্বুদ্ধ করা হয়।

দুবাই পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, যারা নির্দেশনা অমান্য করে ভিক্ষা করবেন এবং ধরা পড়বেন তাদের ৫ হাজার দিরহাম (প্রায় দেড় লাখ টাকা) জরিমানা দিতে হবে। সঙ্গে অভিযুক্তদের তিনমাসের বেশি কারাদণ্ড দেওয়া হবে।

আর যেসব চক্র অন্য দেশ থেকে সাধারণ মানুষকে এনে ভিক্ষাবৃত্তির মতো পেশায় নিয়োজিত করবে তাদের ছয় মাসের কারাদণ্ড এবং এক লাখ দিরহাম জরিমানা করা হবে।

দুবাই পুলিশের কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার আল সামসি অনুরোধ করেছেন, সন্দেহজনক কাউকে ভিক্ষা করতে দেখলে যেন তাদের অবহিত করা হয়। এই কর্মকর্তার মতে, বেশিরভাগই ভিক্ষুকই বানানো গল্প বানিয়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে থাকেন।


মন্তব্য