ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিলিস্তিনপন্থী ও ইসরায়েল সমর্থকদের সংঘর্ষ

যুক্তরাষ্ট্র
  © রয়টার্স

প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ায় ইসরায়েলবিরোধী বিক্ষোভ চলছে। এই বিক্ষোভ দমনে ব্যাপক মারমুখী ভূমিকা পালন করেছে দেশটির পুলিশ। এবার বিশ্ববিদ্যালয়টির লস অ্যাঞ্জেলেসের (ইউসিএলএ) ক্যাম্পাসে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারী এবং ইসরায়েলি প্রতিরোধকারী দলের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষ শুরু হয়। বুধবার (১ মে) একটি মার্কিন গণমাধ্যমের লাইভ ভিডিওতে এ চিত্র দেখা গেছে। খবর রয়টার্সের।

ইউসিএলএর শিক্ষার্থীদের পত্রিকা ডেইলি ব্রুইন বলেছে, ইসরায়েলের সমর্থকরা ক্যাম্পাসে ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের ক্যাম্প ভেঙে ফেলার চেষ্টা করছিল।

লস এঞ্জেলেস ডেপুটি মেয়র অব কমিউনিকেশনস জ্যাচ সিডল সামাজিক মাধ্যম এক্স-এ বলেছেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর জিন ব্লক পুলিশের শরণাপন্ন হন। এ সময় পুলিশ তার আহ্বানে সাড়া দেয়।

২০২০ সালের বর্ণবাদ বিরোধী বিক্ষোভের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে গাজা নিয়ে সবচেয়ে বড় সক্রিয় ছাত্র আন্দোলন এটি।

মার্কিন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে ফিলিস্তিনিপন্থী বিক্ষোভকারীদের রক্ষা করতে বাকি শিক্ষার্থীরা অস্থায়ী ব্যারিকেড হয়ে দাঁড়িয়েছে। কেউ কেউ প্ল্যাকার্ড বা ছাতা ধরে রেখেছে।

মঙ্গলবারের শেষের দিকে নিউইয়র্ক সিটি পুলিশ কলম্বিয়া ইউনিভার্সিটি ক্যাম্পাসের একটি একাডেমিক ভবনে আটকে থাকা কয়েক ডজন ফিলিস্তিনিপন্থী বিক্ষোভকারীকে গ্রেপ্তার করে। এই ক্যাম্পাসে দুই সপ্তাহ ধরে একটি অস্থায়ী বিক্ষোভ ক্যাম্প ভেঙে ফেলার চেষ্টা হয়। সেটিও শেষ পর্যন্ত সরিয়ে ফেলা হয়েছে জোর পূর্বক।


মন্তব্য