মাঝ আকাশে বিমানে তীব্র ঝাঁকুনি; আহত ১২

ঝাঁকুনি
  © ফাইল ছবি

কয়েকদিন আগে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে ঝাঁকুনিতে এক জন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটে। এবার দোহা থেকে ডাবলিনগামী কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে টার্বুলেন্সের (তীব্র ঝাঁকুনি) কারণে অন্তত ১২ জন আহত হয়েছে। 

আজ রবিবার (২৬ মে) স্থানীয় সময় দুপুর ১টার কিছু আগে ডাবলিনে অবতরণ করে। এ সময় বিমানবন্দর পুলিশ এবং ফায়ার অ্যান্ড রেসকিউ বিভাগসহ জরুরি পরিষেবা কাজ করেছে। খবর সিএনএনের।

ডাবলিন বিমানবন্দর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এ ঘটনায় ছয় যাত্রী ও ছয় ক্রু সদস্য আহত হয়েছেন। কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইট কিউআর১০৭ তুরস্কের ওপর দিয়ে উড়ে যাওয়ার সময় টার্বুলেন্সের শিকার হয়।

ডাবলিন বিমানবন্দর বলেছে, তারা যাত্রী এবং কর্মীদের সর্বোচ্চ সহায়তা করছে।

সম্প্রতি সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে টার্বুলেন্সের কারণে ১০৪ জন যাত্রী আহত এবং হৃদরোগে আক্রান্ত এক ব্যক্তি মারা গিয়েছে।

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের বোয়িং ৭৭৭ বিমানের #এসকিউ৩২১ ফ্লাইটটি তীব্র ঝাঁকুনির কবলে পড়ায় থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের সুবর্ণভূনি বিমানবন্দরে জরুরি অবতরণ করে। ওই ফ্লাইটে দুই শতাধিক যাত্রী ছিল। থাইল্যান্ডে জরুরি অবতরণ করে ফ্লাইটটি।

সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের একজন মুখপাত্র জানান, ২১ মে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট #এসকিউ৩২১ লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। হঠাৎ মারাত্মক তীব্র ঝাঁকুনির কবলে পড়লে বিমানটি ব্যাংককের দিকে মোড় নেয় এবং সেখানে স্থানীয় সময় ৩ টা ৪৫ মিনিটে অবতরণ করে। বিমানে ২১১ যাত্রী এবং ১৮ ক্রু ছিলেন।


মন্তব্য