দ. কোরিয়ায় আবর্জনাসহ দুই শতাধিক বেলুন পাঠিয়েছে উ. কোরিয়া

আন্তর্জাতিক
  © সংগৃৃহীত

দক্ষিণ কোরিয়ায় দুই শতাধিক গ্যাস বেলুন পাঠিয়েছে উত্তর কোরিয়া। প্রোপাগান্ডা লিফলেট আর আবর্জনা দিয়ে ভর্তি ২৬০টি গ্যাস বেলুন দক্ষিণ কোরিয়ায় পাঠানো হয়েছে। ফলে বাধ্য হয়েই স্থানীয় নাগরিকদের সতর্ক করে ঘরের ভেতরে অবস্থান করতে বলেছে দক্ষিণ কোরিয়া।

বুধবার দেওয়া এক বিবৃতিতে দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী সাদা রঙের এসব বেলুন এবং এগুলোর সঙ্গে বেঁধে দেওয়া প্লাটিকের ব্যাগ সাধারণ মানুষকে স্পর্শ করতে নিষেধ করেছে। সতর্ক করে বলা হয়েছে, এগুলোর মধ্যে নোংরা বর্জ্য এবং আবর্জনা রয়েছে।

১৯৫০’র দশকে কোরিয়া যুদ্ধের সময় থেকেই উত্তর এবং দক্ষিণ কোরিয়া উভয়ই নিজেদের পক্ষে প্রোপাগান্ডা চালাতে এভাবে গ্যাস বেলুন ব্যবহার করে আসছে। দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী এর আগে জানিয়েছে, বেলুনে উত্তর কোরিয়ার কোনো প্রোপাগান্ডা লিফলেট আছে কি না তা তদন্ত করা হচ্ছে।

সর্বশেষ এই ঘটনার কয়েকদিন আগে উত্তর কোরিয়া জানিয়েছিল যে, দক্ষিণ কোরিয়ার আন্দোলন কর্মীরা সীমান্ত এলাকায় ঘন ঘন লিফলেট এবং অন্যান্য আবর্জনা ছড়িয়ে দিচ্ছে। এই কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তারা প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

উত্তর কোরিয়ার উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী কিম ক্যাং ইল গত রোববার এ সংক্রান্ত এক বিবৃতিতে বলেন, শিগগিরই ময়লা-আবর্জনার স্তুপ সীমান্তের ওপারে এবং রিপাবলিক অব কোরিয়ার (দক্ষিণ কোরিয়া) ভেতর ছড়িয়ে দেওয়া হবে। এসব আবর্জনার স্তুপ সরানোর কাজ কতটা কষ্টসাধ্য সেটা তাদের বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

মঙ্গলবার রাতে দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউল এবং সীমান্ত অঞ্চলে বসবাস করা নাগরিকদের কাছে ক্ষুদেবার্তা পাঠিয়েছে প্রাদেশিক কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় বাসিন্দাদের ঘরের বাইরের সব ধরনের কার্যক্রম থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। একই সঙ্গে জনগণকে এটাও বলা হয়েছে যে, তারা যদি কোনো ‘অচেনা বস্তু’ দেখতে পায় তবে যেন পাশের সামরিক ঘাঁটি বা পুলিশ স্টেশনে খবর দেয়।


মন্তব্য