পুতিনকে ভালুকের হাত থেকে বাঁচিয়ে একের পর এক পদোন্নতি দেহরক্ষীর!

পুতিন
রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও তার তার সাবেক দেহরক্ষী আলেক্সি ডিউমিন  © ফাইল ছবি

শোনা যায়, পুতিনকে একবার ভালুকের হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন তার সাবেক দেহরক্ষী আলেক্সি ডিউমিন। এরপর থেকেই একের পর এক পদোন্নতি হতে থাকে তার।। সর্বশেষ নিজের সাবেক দেহরক্ষী আলেক্সি ডিউমিনকে স্টেট কাউন্সিলের সেক্রেটারি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

আজ বুধবার (২৯ মে) ক্রেমলিনের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রাশিয়ার স্টেট কাউন্সিলের সেক্রেটারি হিসেবে ৫১ বছর বয়সী ডিউমিনকে নিয়োগ দিয়েছেন পুতিন।

স্টেট কাউন্সিল মূলত রাশিয়ার ‘কৌশলগত লক্ষ্য এবং দেশি-বিদেশি নীতি’ নির্ধারণে কাজ করে। ক্রেমলিন এবং সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে আইনপ্রণেতা ও আঞ্চলিক নেতাদের যোগসূত্র হিসেবেও কাজ করে সংস্থাটি।

এর আগে, ডিউমিনকে রাশিয়ার তুলা অঞ্চলের গভর্নরের পদ থেকে প্রেসিডেন্টের সহযোগী হিসেবে ক্রেমলিনে স্থানান্তরিত করা হয়। চলতি মাসে পঞ্চম মেয়াদে প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথগ্রহণের পরপরই এই উদ্যোগ নিয়েছিলেন পুতিন। তারও আগে দেশটির উপ-প্রতিরক্ষামন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ পান ডিউমিন।

জানা যায়, ১৯৯৯ সাল থেকে পুতিনের ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীর দায়িত্বে ছিলেন ডিউমিন। ধীরে ধীরে হয়ে ওঠেন তার সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ দেহরক্ষীদের একজন। দাবি করা হয়, পুতিনকে একবার ভালুকের হাত থেকে বাঁচিয়েছিলেন ডিউমিন। রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আইস হকি খেলেন, এমন হাতেগোনা কয়েকজন কর্মকর্তার মধ্যেও তিনি একজন।

একসময় রাশিয়ার জিআরইউ মিলিটারি ইন্টেলিজেন্সের বিশেষ অপারেশন বিভাগের উপ-প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ডিউমিন। ২০১৪ সালে রাশিয়ার ক্রিমিয়া দখল অভিযানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল এই সামরিক দলের। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনে ভূমিকার জন্য আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার অধীনে রয়েছেন আলেক্সি ডিউমিন।
সূত্র: ব্লুমবার্গ, এনডিটিভি


মন্তব্য