গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান ফরাসি প্রেসিডেন্টের

গাজা
  © ফাইল ছবি

গাজায় অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি কার্যকর এবং একটি রাজনৈতিক সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

গতকাল শনিবার (০৮ জুন) ফ্রান্সে রাষ্ট্রীয় সফরে থাকা যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে বৈঠককালে তিনি এ আহ্বান জানান।

একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ম্যাক্রোঁ বলেন, ‘নয় মাস সংঘাতের পর রাফাহ পরিস্থিতি এবং মানুষের মৃত্যুর সংখ্যা অগ্রহণযোগ্য।’

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কয়েক মাস ধরে দাবি জানানো সত্ত্বেও এটা অসহনীয় যে ইসরায়েল মানবিক সাহায্য প্রবেশের সমস্ত ক্রসিং পয়েন্ট বন্ধ রেখেছে।’

বাইডেন বলেছেন, তারা সব জিম্মিকে তাদের বাড়িতে ফিরিয়ে আনার জন্য এবং গাজায় যুদ্ধবিরতির জন্য কাজ চালিয়ে যাবেন।

ফ্রান্সের নরম্যান্ডি অবতরণের (দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নরম্যান্ডি উপকূলে মিত্রবাহিনীর অবতরণ) ৮০ তম বার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তার অংশগ্রহণের দুদিন পরে ফ্রান্সে বাইডেন তার রাষ্ট্রীয় সফর শুরু করেন।

এদিকে গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর ধ্বংসযজ্ঞ থামছেই না। গাজার সরকারি মিডিয়া অফিস জানিয়েছে, মধ্য গাজার নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি গণহত্যায় ২১০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও চার শতাধিক মানুষ। শনিবার চার জিম্মিকে উদ্ধার করতে গিয়ে নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ চালায় ইসরায়েল।

ডক্টরস উইদাউট বর্ডারস (এমএসএফ) বলছে, মধ্য গাজার আল-আকসা হাসপাতালে যেন এক দুঃস্বপ্নের রাত কাটিয়েছে ফিলিস্তিনিরা। আল আকসা এবং নাসের হাসপাতালে রোগীর চাপ বাড়ছেই। এদের মধ্যে বেশিরভাগই নারী এবং শিশু।

গাজায় হামাস পরিচালিত স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, নুসেইরাত শরণার্থী শিবিরে ইসরায়েলি অভিযানে শিশুসহ কয়েকডজন মানুষ নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও বহু মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে আহতদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হিমিশিম খাচ্ছেন আল-আকসা এবং নাসের হাসপাতালের চিকিৎসাকর্মীরা। তাছাড়া হতাহত শিশুদের ছবিও প্রকাশ করেছে গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

গত বছরের ৭ অক্টোবর দক্ষিণ ইসরায়েলে একটি সংগীত উৎসবে হামলা চালিয়ে ২২১ জনকে জিম্মি করে নিয়ে যায় ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী সংগঠন হামাস। তাদের মধ্যে ৪০ জন মারা গেছেন বলে জানিয়েছে আইডিএফ। হামাসের হাতে এখনো জিম্মি রয়েছে ১১৬ জন।

হামাসের ওই হামলার পর গাজায় অভিযান চালায় ইসরায়েল। গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরায়েলি হামলায় কমপক্ষে ৩৬ হাজার ৮০১ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও ৮৩ হাজার ৬৮০ ফিলিস্তিনি।
সূত্র: আল জাজিরা


মন্তব্য