পরীক্ষার খাতায় আঁকা হার্টের ছবিতে ৫ মেয়ের নাম লিখলেন এক ছাত্র

ভারতে
  © সংগৃৃহীত

সম্প্রতি ইন্টারনেটে ভারতের এক শিক্ষার্থীর পরীক্ষার খাতায় আঁকা হার্টের ছবি ভাইরাল হয়েছে। চিত্রটির বিভিন্ন অংশ চিহ্নিত করতে গিয়ে ওই শিক্ষার্থী লিখেছেন মেয়েদের নাম। 

লাইভমিনট জানিয়েছে, পরীক্ষার প্রশ্নে বলা হয়েছিল হৃৎপিণ্ড বা হার্টের ছবি আঁকতে। সঙ্গে হার্টের নানান অংশ চিহ্নিত করে তার কার্যকারিতা লিখতেও বলা হয়েছিল। কিন্তু খাতায় ওই শিক্ষার্থী হার্টের ছবি আঁকলেও তার নানা ভাগ চিহ্নিত করতে গিয়ে লিখেছেন মেয়েদের নাম।

ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া ছবিতে দেখা গেছে, হার্টের সমস্ত অংশ সে সঠিকভাবে চিহ্নিত করতে পারেনি। সেখানে এক একটি অংশে ভিন্ন ভিন্ন মেয়ের নাম লিখেছেন। হার্টের বিভিন্ন অংশের সঠিক নামের পরিবর্তে লিখেছেন হরিতা, প্রিয়া, পূজা, রূপা এবং নমিতা।

সেখানে প্রিয়ার কার্যকারিতায় ওই শিক্ষার্থী লিখেছেন, ইনস্টাগ্রামে সে সবসময় আমার সঙ্গে চ্যাট করে। আমি তাকে পছন্দ করি। এদিকে রূপা অর্থাৎ বাম নিলয়ের কার্যকারিতার জায়গায় সে লিখেছে, সে আমার সঙ্গে স্ন্যাপচ্যাটে চ্যাট করে। ও খুব সুন্দরী এবং কিউট। নমিতাকে নিজের প্রতিবেশীর মেয়ে বলে পরিচয় দিয়েছে সে। যার আবার লম্বা চুল এবং বড় চোখ রয়েছে। পাশে আবার চোখের ছবিও এঁকেছে সে। আবার পূজা নাকি তার সাবেক প্রেমিকা। তাকে সে ভুলতে পারে না বলেও লিখেছে পরীক্ষার খাতায়।

খাতা দেখে ওই শিক্ষার্থীকে ১০ নম্বরের এর মধ্যে ০ দিয়েছেন শিক্ষক। পাশাপাশি ছাত্রের অভিভাবককে দেখা করার কথাও লিখে দিয়েছেন খাতায়।

গত ১৩ মে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ইনস্টাগ্রামে এই ছবির একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়। আর মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় তা। এখনও পর্যন্ত ৬ কোটি ৪৩ লাখবার দেখা হয়েছে ভিডিওটি। আর লাইক পেয়েছে ১০ লাখের কাছাকাছি। একজন ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, অন্তত তিনি একটি হার্টের ডায়াগ্রাম এঁকেছেন। আরেকজন বলেছেন, তিনি সাহিত্যের নিরিখে হৃদয়ের কাজ লিখেছেন। এদিকে অন্য একজন ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, সে তার সাবেককে ভুলে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।


মন্তব্য