বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল নির্মাণে বাধা: জড়িতদের গ্রেফতারের নির্দেশ হাইকোর্টের

হাইকোর্ট
  © ফাইল ছবি

চাঁদা না দেওয়ায় রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডে (পাউবো) নির্মাণাধীন বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার ম্যুরাল নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে একদল ব্যক্তি। পরে বিষয়টি হাইকোর্ট পর্যন্ত গড়ায়। আজ এক রায়ে এর সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ও সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি কি আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে হাইকোর্টে প্রতিবেদন আকারে দাখিলের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়। 

মঙ্গলবার (২৮ মে) বিচারপতি মো. সেলিম ও বিচারপতি শাহেদ নূর উদ্দিনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ রুলসহ এ আদেশ দেন। রুলে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার ম্যুরাল নির্মাণকাজ বাধা দেওয়ার সঙ্গে জড়িতদের কেন আইনের আওতায় এনে শাস্তি প্রদান করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪ জুন এ বিষয়ে পরবর্তী শুনানির দিন ঠিক করেন তারা। এর আগে আদালতে বিভিন্ন গণমাধ্যমে ‘চাঁদা না দেওয়ায় বঙ্গবন্ধু ও চার নেতার ম্যুরাল নির্মাণকাজ বন্ধ’ শিরোনামে দৈনিক যুগান্তরসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন আদালতে উপস্থাপন করেন সিনিয়র অ্যাডভোকেট মো. অজি উল্লাহ। তিনি আদেশের বিষয়টি যুগান্তরকে নিশ্চিত করেন। 

অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিএম আব্দুর রাফেল ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল বিনয় কুমার ঘোষ, সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল এটিএম আমিনুর রহমান (মিলন) ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল লাইলা রানী শাহ।

গণমাধ্যমে প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, চাঁদা না পেয়ে রাজশাহী পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) কার্যালয়ের সামনে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার ম্যুরাল নির্মাণের কাজ সন্ত্রাসীরা বন্ধ করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। সন্ত্রাসীদের ভয়ে ঠিকাদার কাজ করতে পারছেন না। এ নিয়ে পাউবোর পক্ষ থেকে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।


মন্তব্য