চাঁদা দাবির অভিযোগে কাস্টমস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া
  © সংগৃহীত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেটের উপ-কমিশনার (ডিসি) আবু হানিফ মো. আব্দুল আহাদের বিরুদ্ধে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে আদালতে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৫ জুন) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সদর) আদালতে মো. রাশেদুল হক নামে এক রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তেরর নির্দেশ দিয়েছেন। বাদী রাশেদুল ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শহরের কাউতলিস্থ হোটেল নোওমীর স্বত্বাধিকারী।

মামলার এজহারে বলা হয়, কাস্টমস কর্মকর্তা আবু হানিফ মো. আব্দুল আহাদ ৫ লাখ টাকা চাঁদা প্রদানের জন্য বাদী রাশেদুল হককে চাপ দিয়ে আসছিলেন। এর প্রেক্ষিতে গত ১২ জুন রাশেদুলকে নিজের অফিসে ডেকে পাঠান আহাদ। পরবর্তীতে রাশেদুল তার রেস্টুরেন্টের ব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমিনকে আহাদের অফিসে পাঠান। এ সময় কাস্টমস কর্মকর্তা আহাদ দ্রুত সময়ের মধ্যে ৫ লাখ টাকা চাঁদা না দিলে মামলা দিয়ে ব্যবসা বন্ধ করে দেবেন বলে জানান রেস্টুরেন্ট ব্যবস্থাপককে। পরে ব্যবস্থাপক নুরুল আমিন রেস্টুরেন্ট মালিককে টাকার কথা বলবেন জানিয়ে অফিস থেকে বেরিয়ে আসেন।

এজহারে আরও বলা হয়, গতকাল সোমবার (২৪ জুন) রাত পৌনে ১২টায় কাস্টমস কর্মকর্তা আহাদসহ আরও কয়েকজন রেস্টুরেন্টে গিয়ে তাকে খুঁজতে থাকেন। পরে রাশেদুল আসার পর তাকে ভয়-ভীতি দেখিয়ে আবারও ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন আহাদ। কিন্তু টাকা না দেওয়ায় আহাদ তার সঙ্গে থাকা লোকজন নিয়ে জোরপূর্বক রেস্টুরেন্ট বন্ধ করে দেন। পরবর্তীতে পথচারীরা এসে রেস্টুন্টের সামনে জড়ো হলে আহাদ রাগান্বিত হয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আদালত পুলিশের পরিদর্শক কাজী দিদারুল আলম জানান, আদালতের বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্ত করে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে।


মন্তব্য