বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক নতুন উচ্চতায় নিতে আগ্রহী সৌদি আরব

সৌদি
  © ফাইল ছবি

বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যকার বিদ্যমান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও উচ্চতায় নিতে সম্মত এবং আগ্রহ প্রকাশ করেছে দুই দেশ। বুধবার (জানুয়ারি ৩১) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন সৌদি আরবের শুরা কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ড. আব্দুলাহ বিন মুহাম্মদ বিন ইব্রাহিম আল শেখ। এ সময় তারা দুই দেশের সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।  

প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব কেএম শাখাওয়াত মুন সাংবাদিকদের ব্রিফ করে এ তথ্য জানান।  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ এবং সৌদি আরব দীর্ঘ ও ঐতিহাসিক সুসম্পর্ক রয়েছে।  দুই দেশের সম্পর্কের শেকড় ধর্মীয়, সাংস্কৃতিক এবং অর্থনৈতিক।

আরও পড়ুন: শুল্কহার কমানোর ঘোষণার ১দিন পরেই কমেছে ভোগ্যপণ্যের দাম

তিনি বলেন, ইসলাম ধর্মের জন্ম স্থান মক্কা-মদিনা হওয়ার কারণে সৌদি আরব বাংলাদেশের মুসলমানদের হৃদয়ে বিশেষ জায়গা আছে। প্রতিবছর হাজার হাজার বাংলাদেশি হজ এবং ওমরাহ পালন করেন।  

প্রধানমন্ত্রী দুই পবিত্র মসজিদের তত্ত্বাবধায়ক বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ এবং প্রধানমন্ত্রী ও ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানের দূরদর্শী নেতৃত্ব এবং সৌদি আরবের সাম্প্রতিক উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড, সংস্কারে ভূমিকায় সন্তোষ প্রকাশ করেন।

এসময় ডক্টর আব্দুল্লাহ বিন মুহাম্মদ বিন ইব্রাহিম আল শেখ প্রধানমন্ত্রীকে পুনরায় নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, সৌদি আরব সব সময় বাংলাদেশের সঙ্গে ছিল এবং এর ঐতিহাসিক দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক রয়েছে।

সৌদি আরবের শুরা কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের অভূতপূর্ব উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন।তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব অনুকরণীয় এবং অনুকরণীয়।

ড. আব্দুল্লাহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান আল সৌদের শুভেচ্ছা পৌঁছে দেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান, অ্যাম্বাসেডর অ্যাট লার্জ মো. জিয়াউদ্দিন ও মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া।


মন্তব্য