সংসদে ইমাম মুয়াজ্জিনদের সরকারি বেতনভাতার দাবি

মসজিদ
  © ফাইল ছবি

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনে দেশের সব মসজিদের ইমাম, মুয়াজ্জিন ও খতিবদের সরকারিভাবে বেতনভাতা দেওয়ার দাবি উঠেছে।

মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) ৭১ বিধি অনুসারে জন-গুরুত্বসম্পন্ন বিষয় সম্পর্কে মনোযোগ আকর্ষণ করে সংসদ অধিবেশনে এ দাবি তোলেন পিরোজপুরে-২ আসনের নবনির্বাচিত স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য মহিউদ্দীন মহারাজ।

সংসদে দেওয়া বক্তব্যে মহিউদ্দীন মহারাজ বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটি ধর্মপ্রাণ মুসলমানের কাছে মসজিদ এবং ইমাম-মুয়াজ্জিন ও খতিবগণ অত্যন্ত সম্মান ও শ্রদ্ধার পাত্র হলেও তারা যথাযথ সম্মানি ও ভাতা পান না।

দেশের প্রায় তিন লক্ষাধিক মসজিদ রয়েছে জানিয়ে মহিউদ্দীন মহারাজ বলেন, ইমাম মুয়াজ্জিন ও খতিবরা সরকারিভাবে কোনো নির্দিষ্ট সম্মানি বা বেতন না পাওয়ায় স্থানীয়ভাবে সংগৃহীত সামান্য সম্মানি ও সুযোগ-সুবিধা নিয়ে তাদের জীবনধারণ করতে হচ্ছে। এতে করে ইমাম মুয়াজ্জিনরা প্রতিনিয়ত অর্থনৈতিক ও সামাজিক সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন বলেও দাবি করেন মহারাজ। তাই তাদের জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধির জন্য সরকারিভাবে দেশের সব মসজিদের ইমাম মুয়াজ্জিনদের বেতনভাতা দেওয়ার জন্য ধর্ম মন্ত্রণালয়রে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

মহিউদ্দীন মহারাজ দাবি করেন, দেশের বেশিরভাগ মসজিদ পরিচালনার জন্য কোনো সুনির্দিষ্ট নীতিমালা না থাকায় মসজিদগুলো মূলত পরিচালিত হচ্ছে পরিচালনা কমিটির খেয়াল খুশি মতো। যেখানে মসজিদ কমিটি মসজিদের অবকাঠামোগত উন্নয়নকে ব্যাপক গুরুত্ব দিলেও ইমাম-মুয়াজ্জিনদের বেতনভাতার ব্যাপারে উদাসীন থাকেন বলে সংসদে জানান মহারাজ।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ