এবার বিটিএসের টানে ১৮ ভরি স্বর্ণ ও ৫ হাজার টাকা নিয়ে ঘর ছাড়লেন ১ কিশোরী

বিটিএস
  © ফাইল ফটো

গত কয়েকদিন আগে দক্ষিণ কোরিয়ার জনপ্রিয় ব্যান্ড বিটিএসের টানে ঘর ছেড়েছিল ৩ কিশোরী। তারা বিটিএসের সদস্যদের বিয়ে করতে চায়। ১০ দিন পর তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। এবার বিটিএসের টানে ১৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও ৫ হাজার টাকা নিয়ে ঘর ছেড়েছে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার এক কিশোরী। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। 

বিভিন্ন গণমাধ্যমের তথ্যানুযায়ী, ২১ জানুয়ারি দিনগত রাত দুইটায় ঘর থেকে পালিয়ে যায় বিটিএস ভক্ত ষোলো বছর বয়সী ওই কিশোরী। ঘটনার দীর্ঘ ঊনিশ দিন পর শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) ফতুল্লা মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ করেছে তার পরিবার।

কিশোরীর বাবা অভিযোগে উল্লেখ করেন, ‘আমার মেয়ে পরিবারের সদস্যদের কথা অমান্য করে উশৃঙ্খল জীবনযাপন করতো। কেউ কিছু বললেই তার সঙ্ড়ে উত্তেজিত আচরণ করতো। সে কোরিয়ান ব্যান্ড দল বিটিএসের ভক্ত ছিল। নিজ ঘরে বিটিএস সদস্যদের ছবি টানিয়ে রাখতো। বাসায় কারও সঙ্গে ঝগড়া হলেই বলতো সে কোরিয়া চলে যাবে।’

এবার বিটিএসের টানে ১৮ ভরি স্বর্ণ ও ৫ হাজার টাকা নিয়ে ঘর ছাড়লেন কিশোরী (ছবি: সংগৃহীত)

তিনি বলেন, প্রথমে আমরা ভেবেছিলাম প্রেমের টানে সে ঘর ছেড়েছে, তাই লোকলজ্জার ভয়ে থানায় যাইনি। সম্প্রতি বিটিএস ভক্ত তিন কিশোরী উদ্ধারের ঘটনার সাথে আমার মেয়ের চলে যাওয়ার মিল খুঁজে পাই। তাই থানায় অভিযোগ দিতে এসেছি।

কিশোরীর বাবা বলেন,‘২১ জানুয়ারি রাত ২টার দিকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা ও ১৮ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে সে পালিয়ে যায়। খোঁজাখুঁজির পরও তার সন্ধান পাইনি। শুক্রবার (৯ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় তার ফেসবুক আইডি থেকে আমার ভাতিজিকে জানায়, সে বিটিএস গ্রুপের সঙ্গে আছে এবং দ্রুতই কোরিয়ায় গিয়ে বিটিএস দলের সঙ্গে যোগ দেবে। 

এছাড়া তার ফেসবুকে বিটিএসের মতো নাচগানের অসংখ্য ভিডিও আপলোড করতে দেখা গেছে। এ অবস্থায় সে পরিবারের অনুমতি ছাড়াই কোরিয়া চলে যেতে পারে এবং যেকোনো সময় নিজের বড় ধরনের ক্ষতি করে ফেলতে পারে।’

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) কামাল হোসেন বলেন, অভিযোগের বিষয়টি জানতে পেরেছি, তবে এখনো কাগজ হাতে পাইনি। পরে বিস্তারিত জানাব।

কোরিয়ান ব্যান্ড দলের (বিটিএস) সঙ্গে যোগ দিতে প্রায় ১৮ ভরি স্বর্ণালঙ্কার নিয়ে ঘর ছেড়েছে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার এক কিশোরী। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।


মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ